জ্বলন্ত বাড়ির তিন তলা থেকে বৃদ্ধাকে কাঁধে করে উদ্ধার পুলিশের

কলকাতা: স্যালুট !

এ এক সাহসিকতা, কর্ম তত্পরতার কাহিনি। যার সাক্ষী থাকল শহর কলকাতা।

নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আগুন লেগে যাওয়া তিন তলা বাড়ি থেকে হাঁটতে-চলতে অক্ষম এক বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে আনলেন কলকাতা পুলিশের (Kolkata Police) শ্যামবাজার ট্রাফিক গার্ডের ওসি।তাঁর সঙ্গে ছিলেন এক কনস্টেবলও।নজির রাখলেন সাহসিকতা ও বীরত্বের। এ কথা কলকাতা পুলিশের ফেসবুক পেজে পোস্ট হতেই প্রশংসার ঝড় বইছে।

জানা গেছে, আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে সাতটা নাগাদ শ্যামবাজার পাঁচমাথা মোড়ের কাছে আচার্য প্রফুল্লচন্দ্র রোডের ওপর এক তিনতলা বাড়িতে অগ্নিকাণ্ড ঘটে। বাড়িটির একতলায় সিঁড়ি সংলগ্ন একটি দোকানের রান্নাঘরে গ্যাস সিলিন্ডার থেকে আগুন লেগে যায়। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে আসেন শ্যামবাজার ট্রাফিক গার্ডের ওসি প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় এবং শ্যামপুকুর থানার অ্যাডিশনাল ওসি। তাঁরা দেখেন, দাউদাউ করে জ্বলছে একতলার রান্নাঘর। জানা যায়, ওই বাড়িটিরই তিন তলায় একা থাকেন ৯৩ বছরের কল্পনা ধর। তাঁর ছেলে থাকেন বিদেশে। বৃদ্ধা হাঁটাচলা করতে পারেন না। সুতরাং সিঁড়ি বেয়ে নীচে নেমে আসতে পারবেন না তিনি। এদিকে আগুনও বাড়তে থাকে।

আর এক মুহূর্ত সময় নষ্ট করেননি প্রসেনজিৎ। ধোঁয়ায় ভরে যাওয়া সিঁড়ি দিয়ে দৌড়ে সোজা উঠে যান তিতলায়। কিছুক্ষণ পরেই অশক্ত কল্পনা দেবীকে নিজের পিঠে চাপিয়ে নীচে নেমে আসেন তিনি। আগাগোড়া তাঁর সঙ্গে ছিলেন কনস্টেবল শ্যামল সিং সর্দার। পুলিশের এই সাহসিকতা, দায়িত্ববোধকে কুর্নিশ জানাচ্ছে নাগরিক সমাজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

13 + 12 =