বর্ষবরণের রাতে কলকাতা পুলিশের হাতে গ্রেফতার ১ হাজার ৫৭০

বর্ষবরণের রাতে শহরে শৃঙ্খলাভঙ্গের দায়ে গ্রেপ্তার করা হল ১৫৭০ জনকে। এরমধ্যে বিনা হেলমেটে বাইক চালানোর অভিযোগ রয়েছে ৫৫৭টি। এছাড়াও বাইকে বসা অনেক সওয়ারি হেলমেট ছাড়াই যাতায়াত করছেন। সেই অভিযোগ রয়েছে ২১৬টি। তবে শুধু হেলমেট নয়। ফাঁকা রাস্তা পেয়ে বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানোর অভিযোগ জমা পড়েছে ৩১১টি। এছাড়াও, মদ্যপান করে বিপজ্জনকভাবে গাড়ি চালানোর জন্য ২৮৭ টি এবং অন্যান্য কারণে ট্রাফিক আইন ভাঙার অভিযোগ ১৯৯ জনের বিরুদ্ধে। কলকাতা ট্রাফিক পুলিশের তরফে এদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তবে রাতের কলকাতার দুই জায়গায় দুর্ঘটনা ঘটেছে। তাতে কারও প্রাণহানি ঘটেনি, অল্পবিস্তর আহত হওয়ার খবর মিলেছে।

উল্লেখ্য, করোনার জেরে দু’বছর চুটিয়ে হইহুল্লোড় করতে পারেনি এ শহর। এ বছরও করোনার খবর সামনে আসছে কিন্তু রোগভোগকে থোড়াই কেয়ার বাঙালির! চার্চ থেকে চিড়িয়াখানায় ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। হোটেল রেস্তোরাঁগুলিতে তিল ধারনের জায়গা নেই। আর শহরের ট্রাফিক ব্যবস্থাকে সচল রাখতে সারা রাত চলেছে পুলিশের নজরদারি।

এদিকে বছরের প্রথম দিনও কলকাতার বিভিন্ন স্থানে উৎসব, অনুষ্ঠান। পর্যটন স্থানগুলিতে বেড়াতে গিয়েছেন প্রচুর মানুষ। সেসব জায়গার নিরাপত্তার জন্যও বাড়তি পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। এই দিনটিতেও আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখা বাড়তি দায়িত্ব থাকে পুলিশের। তবে পুলিশ সূত্রে খবর, অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার শৃঙ্খলাভঙ্গের ঘটনা কম। লালবাজারের দাবি, ভিড় নিয়ন্ত্রণে যথেষ্ট সফল পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *