রবীন্দ্র ‘রকস্টার’ জাডেজা ভাঙলেন কপিলের ৩৫ বছরের পুরনো কীর্তি

মোহালি: এই মুহূর্তে বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার কে? কয়েক বছর আগে হলে বেশ কয়েক জন এসে যেতেন আলোচনায়— রবিচন্দ্রন অশ্বিন, সাকিব আল হাসান। কিন্তু এখন? জেসন হোল্ডারের মতো কেউ কেউ হয়তো ধারাবাহিক পারফর্ম করছেন। কিন্তু কেউই রবীন্দ্র জাডেজার ধারেকাছে আসবেন না। বল হাতে তো বটেই, ব্যাট হাতেও তিনি অসম্ভব ধারাবাহিক। টি-টোয়েন্টি হোক আর ওয়ান ডে, ম্যাচ জেতার জন্য সেরা বাজি তিনি। ইদানীং টেস্টেও তিনি দারুণ সফল। অলরাউন্ডারের কাজই হল টিম যখন চাপে, তখন একটা দিক আগলে রাখা। শুধু তাই নয়, টিমকে বিপদসীমা পার করার সঙ্গে সঙ্গে খানিকটা রানও দিয়ে যাওয়া। অলরাউন্ডারের যাবতীয় শর্তপূরণ করছেন জাডেজা। তাঁর নাছোড় মানসিকতার জন্যই শ্রীলঙ্কার  বিরুদ্ধে নট আউট ১৭৫ রানের ইনিংস খেলে গেলেন। বলা ভালো, জাডেজাই ভারতকে প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় দিনই জয়ের স্বপ্ন দেখিয়ে দিলেন।

প্রথম দিনের শেষ ৩৫৭-৬ ছিল ভারতের। প্রথম ইনিংসে রোহিত শর্মার টিমকে ৫৭৪-৮ এ পৌঁছে দেওয়ার পিছনে জাডেজাই। ৪৫ রানে নট আউট ছিলেন প্রথম দিন। দ্বিতীয় দিন করে গেলেন আরও ১৩০ রান। সাত নম্বরে নেমে টিমকে ভরসা দেওয়ার কাজটা শুরু থেকে করে যাচ্ছেন তিনি। সেই কারণেই সাত নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ভেঙে দিলেন ভারতের হয়ে কপিল দেবের সর্বোচ্চ ১৬৩ রানের রেকর্ডটাও। আইপিএলে প্রতি মরসুমেই দারুণ পারফর্ম করেছেন। সেই কারণেই তাঁকে এ বারও ১৪ কোটি টাকায় রিটেইন করেছিল চেন্নাই সুপার কিংস। বোলিং, ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাঁর মতো ফিল্ডারও খুব কম আছে। যা শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধেই ১৯৮৭ সালে কানপুর টেস্টে করেছিলেন কপিল।

চার মেরে সেঞ্চুরি করেছিলেন। ৬ মেরে ১৫০ করেছিলেন জাডেজা। প্রায় সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা ব্যাটিং করে ২২৮ বল খেলে করলেন নট আউট ১৭৫। মেরেছেন ১৭টা চার ও ৩টে ছয়। শ্রীলঙ্কার কোনও বোলারই দাঁড়াতে পারেননি তাঁর সামনে। সাম্প্রতিক কালে ভারতের কোনও টপ অর্ডার ব্যাটারও এত রান করেননি। সে দিক থেকে দেখলে জাডেজা রীতিমতো ‘রকস্টার’ হয়ে উঠছেন। টুইটারে তাঁর ভক্তরা তো বলতে শুরু করে দিয়েছেন, জাডেজাই এই মুহূর্তে বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার।

গত বছর থেকেই নিজেকে পাল্টে ফেলেছেন জাডেজা। সব ধরনের ফর্ম্যাটেই তিনি দারুণ সফল। টেস্টেও তাঁর ব্যাট বারবার গর্জে উঠেছে। ২০১২ সাল থেকে ২০১৮ সালের জুন মাস পর্যন্ত ধরলে, ৫৩ ইনিংসে ১১৯৬ রান করেছেন জাডেজা। গড় ২৯.১৭। হাফসেঞ্চুরি ৮টা। ২০১৮ সাল থেকে এই জাডেজাই আবার অন্য রকম পারফর্ম করেছেন। ৩২টা ইনিংসে হাজারেরও বেশি রান। ১টা সেঞ্চুরি। ১টা ডাবল সেঞ্চুরি। ৯টা হাফসেঞ্চুরি। গড় ৪৩.৫০। বল হাতে জাডেজা কী করেন, সে দিকেই এখন চোখ মোহালির।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

18 − five =