আইপিএল স্পনসরশিপে রেকর্ড অর্থ আয় বিসিসিআইয়ের

মুম্বই: আইপিএলে  দলসংখ্যা বেড়েছে। বেড়েছে ম্যাচ সংখ্যাও। একই সঙ্গে বোর্ডের অর্থ ভাণ্ডারও বেশ ফুলে ফেঁপে উঠেছে। লাভের মুখ দেখেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। আইপিএল ২০২২ শুরু হওয়ার আগেই রীতিমতো ছক্কা হাঁকাল বিসিসিআই এ বারের আইপিএলে স্পনসরশিপদের থেকে ৮০০ কোটি টাকা উপার্জন করেছে সৌরভের বোর্ড। এখনও পর্যন্ত এটাই বোর্ডের রেকর্ড উপার্জন। এর আগের আইপিএলগুলো থেকে এত টাকা রোজকার করেনি বিসিসিআই। এ বছরই আইপিএলের টাইটেল স্পনসরের জন্য নতুন সংস্থাকে পেয়ে গিয়েছে বিসিসিআই। টাইটেল স্পনসর থেকে বোর্ডের ভাণ্ডারে আগের চেয়ে কম অর্থ ঢুকলেও, একই সঙ্গে দুটো নতুন অ্যাসোসিয়েট স্পনসরও পেয়েছে বোর্ড। যারা সব দিক থেকেই বোর্ডের ভাণ্ডার ভরিয়ে দিয়েছে। সম্প্রতি আইপিএলের গভর্নিং কাউন্সিলে নতুন দুটো অ্যাসোসিয়েট স্পনসরের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। দুটো নতুন সংস্থা থেকে ৮৬ কোটি টাকা পেয়েছে বোর্ড।

বোর্ড সচিব জয় শাহ বলেন, ‘আইপিএলের যে নিজস্ব একটা ব্র্যান্ড ভ্যালু আছে সেটা দেখা যাচ্ছে। নতুন স্পনসর পেয়ে আমরা খুব খুশি। মোট কত টাকা আমাদের ভাণ্ডারে এসেছে সে নিয়ে আমি মন্তব্য করতে চাই না। তবে এ বছর আমরা স্পনসরশিপ থেকে রেকর্ড অর্থ পেয়েছি।’

এই প্রথম বার আইপিএল অফিসিয়াল পার্টনারের ৬টা জায়গাই পূরণ করেছে বোর্ড। টাইটেল স্পনসর থেকে ৫০০ কোটির কিছু বেশি টাকা পেয়েছে বোর্ড। বাকি ৬টা স্পনসর থেকে সব মিলিয়ে মোট ৩০০ কোটি টাকা পেয়েছে বিসিসিআই। ২৬ তারিখ থেকে শুরু আইপিএল। দেশের এক নম্বর লিগ শুরু হওয়ার অপেক্ষা। প্রথম ম্যাচেই ধোনির চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে নামবে কলকাতা নাইট রাইডার্স।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen + 14 =