আরব সাগরে জলদস্যুদের হাতে অপহৃত ১৯ পাক নাগরিককে উদ্ধার করল ভারতীয় নৌবাহিনী

ফের আরব সাগরে জলদস্যুদের বিরুদ্ধে অভিযানে আরও একটি বড় সাফল্য পেল ভারতীয় নৌবাহিনী। আরব সাগরে জলদস্যুদের হাত থেকে ১৯ পাকিস্তানি নাবিককে উদ্ধার করল ভারতীয় নৌসেনার রণতরী। রবিবার ইরানের নিশানধারী একটি মাছ ধরার জাহাজ অপহরণ করে সোমালি জলদস্যুরা।আরব সাগরে সোমালিয়ার পূর্ব উপকূলে জলদস্যুদের হাত থেকে আরও একটি অপহৃত জাহাজ ছিনিয়ে আনল ভারতীয় নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ আইএনএস সুমিত্রা।  খবরটি জানিয়ে টুইট করেছে নৌবাহিনী। টুইটারে বলা হয়েছে, জলদস্যুদের বিরুদ্ধে ৩৬ ঘণ্টার মধ্যে এটা ভারতীয় যুদ্ধজাহাজের দ্বিতীয় সফল অভিযান।

নৌসেনা সূত্রে খবর, এনিয়ে গত দুদিনের মধ্যে দ্বিতীয়বার জলদস্যু দমন অভিযানে নামে নৌবাহিনী। রবিবার রাতে তাদের কাছে খবর আসে আরব সাগরে সোমালিয়ার সশস্ত্র জলদস্যুদের কবলে পড়েছে ইরানের নিশানবাহী মাছ ধরার জাহাজ আল নাইমি। তাতে রয়েছেন ১৯ জন পাক নাবিক। সকলকে পণবন্দি করে নেওয়া হয়েছে। এর পরই অপহৃত জাহাজটি উদ্ধারের জন্য ছুটে যায় আইএনএস সুমিত্রা। সোমবার সোমালিয়ার পূর্ব উপকূলের কাছে ওই জাহাজটিকে আটকে দেন নৌসেনার জওয়ানরা। জলদস্যুদের হাত থেকে সফলভাবে মুক্ত করে আনা হয় পণবন্দিদের। জাহাজটি উদ্ধারের পর ভালো করে সমস্ত কিছু খতিয়ে দেখেন নৌসেনার শীর্ষ আধিকারিকরা। সকল পাক নাবিকদের শারীরিক পরীক্ষাও করা হয়। এছাড়া হামলাকারী জাহাজের ১১ জন জলদস্যুকেও পাকড়াও করা হয়েছে বলে নৌবাহিনীর মুখপাত্র জানিয়েছেন।

এর কয়েক ঘণ্টা আগে এমভি ইমান নামে আরও একটি ভেসেল এবং সেটির ১৭ জন ক্রু সদস্যকে উদ্ধার করে ভারতীয় যুদ্ধজাহাজ আইএনএস সুমিত্রা। ৩৬ ঘণ্টারও কম সময়ের মধ্যে আইএনএস সুমিত্রা জলদস্যুদের হাত থেকে দুটি ভেসেল ছিনিয়ে আনতে সমর্থ হল বলে ভারতীয় নৌবাহিনীর মুখপাত্র জানিয়েছেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *