৫০ মিনিটের ফোনালাপে মোদিকে সাহায্যের আশ্বাসবার্তা পুতিনের

ইউক্রেন পরিস্থিতি নিয়ে ফের রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে কথা বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি(Narendra Modi)। সোমবার, যুদ্ধের দ্বাদশ দিনে দুই রাষ্ট্রনেতার প্রায় ৫০ মিনিট ফোনে কথা হয়। প্রধানমন্ত্রী সচিবালয়ের একটি সূত্রে জানা গিয়েছে, যুদ্ধ থামাতে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমির জেলেনস্কির (Voledimir Zeleneski) সঙ্গে পুতিনকে সরাসরি কথা বলার আবেদন জানিয়েছেন মোদি।

ইউক্রেন সঙ্কটের আবহে এই নিয়ে তৃতীয় বার ফোনে পুতিনের সঙ্গে কখা বললেন মোদি। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ প্রেসিডেন্টের ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের ঘোষণার পরে এ দ্বিতীয় বার কথা হল দু’জনের। পুতিনের সঙ্গে কথা বলার আগে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির সঙ্গেও ফোনে প্রায় ৩৫ মিনিট প্রধানমন্ত্রীর আলোচনা হয়। পূর্ব ইউক্রেনের যুদ্ধবিধ্বস্ত সুমি শহরে আটর প্রায় ৭০০ ভারতীয় পড়ুয়াকে উদ্ধারের বিষয়ে মোদি ইউক্রেন সরকারের সাহায্য চান।

এই পরিস্থিতিতে আজ রুশ প্রেসিডেন্ট এবং ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কথা বলার কথা ছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির। সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, ইউক্রেনের সংঘাত নিয়ে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির (Vladimir Putin) পুতিনের সঙ্গে কথা বলেছেন মোদি। রাশিয়া সামরিক অভিযান শুরু করার পর থেকে এই নিয়ে তৃতীয়বার রুশ প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কথা বললেন প্রধানমন্ত্রী। তবে মোদির বক্তব্যের মূলেই ছিল ভারতীয়দের নিরাপদ উদ্ধারাভিযান।

সূত্রের খবর, ৫০ মিনিট ধরে পুতিনের সঙ্গে কথাবার্তা চলে মোদির। ইউক্রেনের পরিস্থিতি নিয়েই আলোচনা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। সরকারি সূত্রে খবর, রাশিয়া এবং ইউক্রেনের মধ্যে চলা সমঝোতা নিয়ে মোদিকে জানান পুতিন। পুতিনের সঙ্গে কথাবার্তায় এখনও ইউক্রেনে আটকে থাকা ভারতীয়দের উদ্ধারের উপর জোর দিয়েছেন। তিনি বলেছেন যাতে সুমিতে আটকে পড়া ভারতীয় পড়ুয়াদের তাড়াতাড়ি নিরাপদে দেশে ফিরিয়ে আনা যেতে পারে। রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এই বিষয়ে সম্মতি জানিয়েছেন। সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, পুতিন আশ্বস্ত করেছেন যে সুমি থেকে ভারতীয় পড়ুয়াদের নিরাপদ উদ্ধারে সবরকম সাহায্য করা হবে রাশিয়ার তরফে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − four =