দেড়দিন পর খোঁজ মিলল হেমন্ত সোরেনের

প্রায় দেড়দিন পরে দেখা মিলল হেমন্ত সোরেনের। মঙ্গলবার রাজ্যের রাজধানী রাঁচিতে দেখা গেল তাঁকে। তিনি আসার আগেই ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবন, সেখানকার রাজভবন এবং রাঁচিতে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট অফিসের ১০০ মিটারের মধ্যে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়।

সূত্রের খবর, বুধবার দুপুর ১টায় তাঁর রাঁচির বাসভবনে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের আধিকারিকদের সামনে তাঁর বিবৃতি রেকর্ড করতে রাজি হয়েছেন ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন। ইডি-র রাঁচি অফিসে তিনি একটি চিঠি দিয়েছেন। চিঠিতে তিনি জানিয়েছেন, তদন্তে তিনি সহযোগিতা করার জন্য প্রস্তুত। হেমন্ত সোরেন আরও দাবি করেছেন, এই তদন্ত রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

উল্লেখ্য, সোমবার সোরেনের দিল্লির বাসভবনে যান ইডি আধিকারিকরা। কিন্তু ইডির দাবি, সেখানে সোরেনের দেখা মেলেনি। টানা ১৩ ঘণ্টা ধরে সেখানে তল্লাশি চালান তাঁরা। রাত সাড়ে ১০টা নাগাদ সোরেনের বাসভবন ছেড়ে বেরিয়ে যান। ইডি সূত্রে খবর, সোরেনকে না পাওয়া গেলেও তাঁর বাসভবনে তল্লাশি চালিয়ে বেশি কিছু নথি, নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। ইডি সূত্রের খবর, সোরেনের দিল্লির বাসভবন থেকে দু’টি বিএমডব্লিউ গাড়ি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এ ছাড়াও বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথি এবং নগদ ৩৬ লক্ষ টাকা উদ্ধার হয়েছে। কিন্তু খোঁজ ছিল না তাঁর।  অবশেষে মঙ্গলবার দুপুরে রাঁচিতে নিজের বাসভবনে ফিরে এলেন ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী। ফিরেই দলীয় বিধায়কদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন তিনি। উল্লেখ্য, আর্থিক তছরুপের মামলায় ১০ বার হেমন্তকে সমন পাঠিয়েছে ইডি। সূত্রের খবর, বুধবার সেই সমনে সাড়া দিয়ে ইডি দপ্তরে হাজিরা দেবেন ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *