মেয়ের শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে প্রতিবেশীর হাতে খুন বাবা, গ্রেপ্তার ১

মেয়ের শ্বশুর-বাড়ির ঝগড়া মেটাতে গিয়ে প্রতিবেশীদের হামলায় খুন হলেন গৃহবধূর বাবা। শুক্রবার রাতে চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে চাঁচল থানার হলদিবাড়ি এলাকায়। রাতে গুরুতর জখম ওই ব্যক্তিকে মালদা মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হলে শনিবার সকালে তার মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় শ্বশুরবাড়ি এবং তার প্রতিবেশী হামলাকারী আটজনের বিরুদ্ধে চাঁচল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃতের পরিবার। পুলিশ অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে মহম্মদ শাহজাহান নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে। বাকি অভিযুক্তদের খোঁজ চালাচ্ছে চাঁচল থানার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতের নাম আব্দুল হক (৪০)। তার বাড়ি চাঁচল ২ ব্লকের ধানগড়া বিষণপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের হলদিবাড়ি এলাকায়। মৃতের পরিবারে রয়েছে স্ত্রী ও চার মেয়ে রয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আব্দুল হকের মেয়ে চুমকি বিবির কয়েক বছর আগে বিয়ে হয় হলদিবাড়ি এলাকার রুস্তম শেখের সঙ্গে। মাঝে-মধ্যেই চুমকির সঙ্গে শ্বশুরবাড়ির গন্ডগোল বাঁধে। সে মতো এদিন রাতে চুমকি বিবির বাবা আব্দুল হক সেই গন্ডগোলের মীমাংসা করতে  মেয়ের শ্বশুর বাড়িতে যান। এরপর প্রতিবেশী বাবলু শেখের সঙ্গে তার বচসা বেঁধে যায়। তারপর হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে দুইজন। সেই বিবাদকে কেন্দ্র করে আব্দুল হককে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারি কোপ মারে বাবলু হক সহ তার দলবল। ধারালো অস্ত্রের পাশাপাশি বাঁশ দিয়ে মাটিতে ফেলে বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। ঘটনাস্থল থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় আব্দুল হককে তড়িঘড়ি উদ্ধার করে  মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। শনিবার সকালে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়। চাঁচল থানার পুলিশ জানিয়েছে, অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পুরো ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 1 =