গাড়িতে গর্ভমেন্ট অফ ইণ্ডিয়া স্টিকার লাগিয়ে ছাগল চুরি, জুটল গণধোলাই

পূর্ব বর্ধমান : গাড়িতে গর্ভমেন্ট অফ ইণ্ডিয়া স্টিকার লাগিয়ে বেশ ভালোই চলছিলো ছাগল চুরির কারবার। অবশেষে বৃহস্পতিবার হাতেনাতে ধরা পড়ল সরকারি স্টিকার লাগানো গাড়িসহ দুই ছাগল চোর। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমান জেলার সড়াইটিকর পঞ্চায়েতের শান্তিপাড়া এলাকায়। হাতেনাতে ধরা পড়ার পর জুটলো গণধোলাই। অবশেষে খবর পেয়ে পুলিশ পৌঁছে উত্তেজিত জনতার হাত থেকে ওই দু’জনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, মানুষের চোখে ধুলো দিয়ে ছাগল চুরি করতেই গাড়িতে ব্যবহার করা হত সরকারি স্টিকার। বৃহস্পতিবার সরকারি স্টিকার লাগানো একটি গাড়ি এলাকায় ছাগল চুরি করে পালানোর সময় স্থানীয়রা দেখে ফেলে।

একটি ছাগল সহ দু’জনকে হাতেনাতে ধরে ফেলে এলাকার বাসিন্দারা। স্থানীয়দের হাতে ধৃত ছাগল চোরদের কপালে জোটে গণধোলাই। স্বাভাবিক ভাবেই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, বেশ কয়েকদিন ধরে সড়াইটিকর পঞ্চায়েতের শান্তিপুর ও পাশ্ববর্তী এলাকা থেকে এক এক করে ছাগল চুরি হয়ে যাচ্ছিল। এলাকায় তন্নতন্ন করে খুঁজলেও হারিয়ে যাওয়া ছাগল খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিলো না। শাকিব হোসেন খান ও রেহেনা বিবি বলেন, প্রত্যেকদিন এলাকাতে কালো কাঁচ ও সরকারি স্টিকার লাগানো গাড়ি ঘোরাফেরা করছিলো। তাতে কিছুটা সন্দেহ হয় স্থানীয়দের। বৃহস্পতিবার ফের এলাকাতে ওই সরকারি স্টিকার লাগানো গাড়িটি দেখা যায়।

গাড়িতে একটি ছাগল তুলে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করলে স্থানীয়রা গাড়িটিকে আটকায়। গাড়ির ভিতর থেকে উদ্ধার হয় একটি ছাগল। ঘটনা সামনে আসতেই স্থানীয়রা উত্তেজিত হয়ে গাড়িটিতে ভাঙচুর চালায় এবং গাড়ির চালক ও তার সঙ্গে থাকা এক ব্যক্তিকে মারধর করে। পরে অভিযুক্ত দুই ব্যক্তিকে বর্ধমান থানার পুলিশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। স্থানীয়দের অভিযোগ, সরকারি স্টিকার লাগিয়ে সাধারণ মানুষের চোখে ধুলো দিয়ে ছাগল চুরির চলছিলো সড়াইটিকর এলাকায়। চুরিতে ব্যবহার হওয়া গাড়িটিকে আটক করেছে বর্ধমান থানার পুলিশ। দুই ছাগল চোরকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। এরা কোথায় থেকে এসেছিল, সরকারি স্টিকারের ব্যবহার কেন করেছে, তার তদন্ত শুরু করেছে বর্ধমান থানার পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen + four =