পোকার আক্রমণেই নাজেহাল কৃষকরা

নিজস্ব প্রতিবেদন, পূর্ব বর্ধমান: বিভিন্ন ধরনের ধানের পাশাপাশি এই জেলায় খাস ধানেরও চাষ হয়। এর পোশাকি নাম গোবিন্দভোগ। আর এই ধানের বৈশিষ্ট্যই হল, এটির গন্ধ। বর্তমানে এই অপূর্ব গন্ধযুক্ত ধানের চাল বাঙালি সমাজের প্রায় প্রতিটি বাড়িতেই থাকে। আর এতেই লাভবান হন গোবি¨ভোগ চাল উৎপাদনকারী চাষিরা। কিন্তু সেই আশায় এবার জল ঢেলে দিয়েছে শোষক পোকা। শোষক পোকার আক্রমণেই নাজেহাল পূর্ব বর্ধমানের কৃষকরা।
আগে এই সুগন্ধি ধানের খুব ভালো দাম পাওয়া যেত। কিন্তু এখন দাম অনেকটাই কম। আর যে ভাবে শোষক পোকা মাঠের পর মাঠ ধানে লেগে গিয়েছে, তাতে লাভের মুখ দেখবেন না বলেই মনে করছেন কৃষকরা। এবার তেমন দাম পাবেন না বলেই জানিয়েছেন পূর্ব বর্ধমানের বুজরুক দীঘি এলাকার কৃষক উত্তম দলুই। তাঁর দাবি, জেলার বাইরে সারা রাজ্যজুড়ে এই গোবিন্দভোগ বা খাস ধান থেকে তৈরি চালের জনপ্রিয়তা রয়েছে। কেউ কেউ এই চাল দিয়েই নানান পদ রান্না করেন।
এমনকি দক্ষিণ ভারতে গোবিন্দভোগ চালের একটা বড় কদর আছে। পায়েস তৈরিতে অনেকে এটি ব্যবহার করেন। সব মিলিয়ে এর কদর এর গন্ধের কারণে। কিন্তু কদর যতই হোক না কেন, ধানে যে ভাবে শোষক পোকা লেগেছে তাতে বিপুল ক্ষতির আশঙ্কা করছেন চাষিরা। আমনের ফলন ব্যাপক হারে মার খাবে বলে আশঙ্কা করছেন তাঁরা। যার জেরে মাথায় হাত পূর্ব বর্ধমানের কৃষকদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *