পৌষ এলেও পশ্চিমী ঝঞ্জার জেরে উধাও শীত, বাড়বে তাপমাত্রা

পৌষ এসে গেছে। এদিকে তাপমাত্রা বৃদ্ধি নিয়ে কপালে ভাঁজ শীতপ্রেমী বাঙালির। বড়দিনের আগেই কার্যত কুপোকাত শীত। অনেকটাই বেড়ে গেল রাতের তাপমাত্রা। আজ, শনিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৬.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের চেয়ে ৩ ডিগ্রি বেশি। বোঝাই যাচ্ছে, একধাক্কায় ঠিক কতটা তাপমাত্রার তফাৎ হয়েছে। ১৪ থেকে ১৫ ডিগ্রিতে পৌঁছে গিয়েছে জেলার তাপমাত্রাও। হঠাৎ শীতের এই উধাও হয়ে যাওয়ার ঘটনায় প্রধান কাৎণ হিসেবে পশ্চিমী ঝঞ্জাকেই দায়ী করছে আলিপুর আবহাওয়া অফিস।কারণ, সাগরের জলীয় বাষ্প ঢুকতেই কোণঠাসা শীত। এদিকে তাপমাত্রার এই ওঠানামায় স্বাস্থ্য নিয়েও বাড়ছে উদ্বেগ।

বড়দিনের আগে যে তাপমাত্রা আরও কিছুটা বাড়বে, সেই পূর্বাভাস আগেই দেওয়া হয়েছিল। শুক্রবার থেকেই তা বেশ টের পাচ্ছেন রাজ্যবাসী। সকালের দিকে একটু হিমেল হাওয়ায় হালকা কাঁপুনি দিলেও বেলা বাড়লে সোয়েটার গায়ে রাখা যাচ্ছে না। এদিকে আলিপুর আবহাওয়া দফতর এও জানাচ্ছে, তাপমাত্রা আরও কিছুটা বাড়বে। অর্থাৎ লেপের ভিতর শীত উপভোগ করার বদলে ঘেমে-নেয়ে যেতেও হতে পারে। সহসা শীত ফেরার আশা কম বলেও মনে করছেন আবহাওয়াবিদরা। আসলে শীতের পথ আগলে দাঁড়াবে বঙ্গোপসাগরের জলীয় বাষ্প। আর এই বঙ্গোপসাগরের জলীয় বাষ্পের কারণে হিমেল হাওয়া ভিতরে প্রবেশ করতে পারে না। তার জন্যই বেড়ে যায় তাপমাত্রা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *