টেনিস কোর্টে রুশ প্রতিপক্ষকে হারিয়ে যোগ্য জবাব এলিনার

মন্তেরে:  ইউক্রেনের আকাশ জুড়ে শুধুই কালো ধোয়া। রাশিয়ার হামলায় বিধ্বস্ত ইউক্রেন। রাশিয়া-ইউক্রেনের সংঘাত নিয়ে গোটা বিশ্ব তোলপাড়। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযান চালানোর নির্দেশ দিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন। তারপরই রুশ সেনাবাহিনী একের পর এক হামলা চালায় ইউক্রেনের বিভিন্ন জায়গা। ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহরে একের পর এক মিসাইল হামলা হয়। উপগ্রহ চিত্রে ধরা পড়েছে কিয়েভের খুব কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েছে রুশ সেনাবাহিনী। ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভকে ঘিরে ফেলেছে রুশ সেনা। শয়ে শয়ে মৃতদেহ ইউক্রেনের পথে ঘাটে। সামরিক দিক দিয়ে রাশিয়ার উপর পাল্টা আঘাত হানার শক্তি নেই ইউক্রেনের। কিন্তু টেনিস কোর্টে রুশ প্রতিপক্ষকে উড়িয়ে যোগ্য জবাবটা এভাবেই দিলেন  টেনিস তারকা।

মেক্সিকোতে মন্তেরে ওপেনে হলুদ আর নীল রঙের পোশাকেই কোর্টে নামেন ইউক্রেনের এলিনা সিতোলিনা। উল্টো দিকে ছিলেন রাশিয়ার আনাস্তেসিয়া পোতাপোভা। দেশের মানুষের হয়ে জবাবটা কোর্টেই দিলেন এলিনা। রুশ প্রতিপক্ষকে উড়িয়ে দিলেন স্ট্রেট সেটে। খেলার ফল ৬-২, ৬-১।

নিজের দেশ যে ভাবে রাশিয়া আগ্রাসনে ক্ষতবিক্ষত হচ্ছে, তা নিয়ে নিয়মিত নেটমাধ্যমে প্রতিবাদ করছেন এলিনা। মেক্সিকোর মন্টেরে-তে পোটাপোভার বিরুদ্ধে খেলার আগেই জানিয়ে দেন, তিনি কোনও রাশিয়ার খেলোয়াড়ের বিরুদ্ধে নামবেন না। এরপরেই মহিলাদের টেনিস সংস্থা ডব্লিউটিএ জানিয়ে দেয়, রাশিয়ার প্রতিযোগিরা নিজের দেশের নাম বা পতাকা নিয়ে খেলতে পারবেন না।

ম্যাচের পর আবেগতাড়িত হয়ে পড়েন ২৭ বছরের এলিনা। তিনি বলেন, ‘আজকের দিনটা আমার কাছে খুবই স্পেশাল। আমার মন একেবারেই ভালো ছিল না। কিন্তু কোর্টে নামার পর আমি খুশিই হয়েছি। আমি ফোকাস ছিলাম। দেশের জন্য এই ম্যাচে জিততে মরিয়া হয়েছিলাম।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × three =