মুম্বই সিটি এফসির বিরুদ্ধে গোলশূন্য ড্র ইস্টবেঙ্গলের

মন্দের ভালো বলা যায় কি? হয়তো। মুম্বই সিটি এফসির বিরুদ্ধে অ্যাওয়ে ম্য়াচে গোলশূন্য ড্র ইস্টবেঙ্গলের। এ বারের আইএসএল মরসুমে অপরাজিত রয়েছে মুম্বই সিটি এফসি। গত বারের আইএসএলে লিগ শিল্ড জিতেছিল। এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও খেলেছে। তাদের বিরুদ্ধে ১ পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়া ইস্টবেঙ্গলের কাছে বড় প্রাপ্তিই। অন্তত মন্দের ভালো বলাই যায়। তবে আপশোস থাকবেই। সুযোগ তৈরি হয়েছিল। কাজে লাগাতে পারলে এক পয়েন্টের জায়গায় পুরো তিন পয়েন্ট নিয়েই ফেরা যেত।

গত ম্যাচের প্রথম একাদশে একটি মাত্র পরিবর্তন করেছিলেন ইস্টবেঙ্গল কোচ কার্লেস কুয়াদ্রাত। নন্দকুমারের জায়গায় তরুণ ফুটবলার বিষ্ণুকে শুরু থেকে খেলানো হয়। মুম্বইয়ের ঘরের মাঠে ম্যাচ। গ্যালারি সঙ্গে থাকায় অতিরিক্ত তেতে ছিল মুম্বই সিটি এফসি ফুটবলাররা। লাল-হলুদ ব্রিগেডকে কার্যত লড়তে হয়েছে গ্যালারির সঙ্গেও। ইস্টবেঙ্গল শুরু থেকেই দাপুটে ফুটবল খেলে। ঘরের মাঠে বেকায়দায় পড়ে বারবার মেজাজ হারাচ্ছিলেন মুম্বই সিটি এফসি প্লেয়াররা। দু-দলের ফুটবলাররা বেশ কয়েক বার বিবাদেও জড়িয়ে পড়েন।

দ্বিতীয়ার্ধে বেশ কিছু পরিবর্তন করেন কোচ কার্লেস কুয়াদ্রাত। সুযোগ তৈরি হলেও স্কোরলাইনে তার প্রভাব পড়েনি। ইস্টবেঙ্গলকে বরং বড় বিপদের হাত থেকে বাঁচিয়েছেন গোলকিপার প্রভসুখন গিল। পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জের শট অনবদ্য দক্ষতায় বাঁচিয়ে দেন প্রভসুখন। নয়তো এক পয়েন্টও হাতছাড়া হত ইস্টবেঙ্গলের। নর্থ ইস্ট ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে ৫-০’র বিশাল জয়, পঞ্জাবের বিরুদ্ধে ড্রয়ের পর অ্যাওয়ে ম্যাচে এক পয়েন্ট। কিছুটা হলেও স্বস্তিতে লাল-হলুদ শিবির।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *