এপ্রিলের মাঝামাঝি সিএসকের হয়ে মাঠে নামার সম্ভাবনা দীপক চাহারের

চেন্নাই: আইপিএলের  মেগা নিলামে এই প্রথম কোনও ভারতীয় পেসারের দাম উঠেছিল ১৪ কোটি টাকা। তীব্র লড়াইয়ের পর চেন্নাই সুপার কিংসই কিনে নিয়েছিল দীপক চাহারকে  কিন্তু আইপিএল শুরুর আগেই আবার ধাক্কা খেয়েছিল মহেন্দ্র সিং ধোনির টিম। চোটের কারণে হয়তো পুরো আইপিএলেই খেলতে পারবেন না সবচেয়ে দামি ভারতীয় পেসার। কিন্তু পরিস্থিতি এখন অনেকটাই পাল্টেছে। আশঙ্কা কমছে দীপক চাহারকে ঘিরে। আপাতত অস্ত্রোপচারের দরকার নেই তাঁর। আইপিএলের মাঝামাঝি টিমে ফিরতে পারবেন তিনি। এটা কিছুটা হলেও স্বস্তি দিচ্ছে সিএসকে-কে। গত কয়েক মরসুমে হলুদ জার্সির দুরন্ত ক্রিকেটের একটা বড় কারণ চাহারদের মতো বোলারদের ফর্ম। চাহার গত মরসুমেও চমৎকার পারফর্ম করেছিলেন। শুধু বল হাতে নয়, প্রয়োজন পড়লে ব্য়াট হাতেও যে তিনি টিমকে টানতে পারেন, তা দেখিয়েছেন। সেই কারণেই চাহারের না থাকাটা কিছুটা হলেও ধাক্কা ছিল টিম ম্যানেজমেন্টের কাছে। সেই আশঙ্কা আপাতত রইল না।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ভারতের হোম সিরিজে ওয়ান ডে ও টি-টোয়েন্টি টিমে ছিলেন চাহার। কিন্তু তৃতীয় ওয়ান ডে ম্যাচের সময়ই কোয়াসেপ টিয়ার হয়েছিল তাঁর। চোটের কারণেই টি-টোয়েন্টি সিরিজ থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন। তখন থেকেই আশঙ্কা তৈরি হয়েছিল ডান হাতি অলরাউন্ডারকে নিয়ে। তাঁর চোটের স্ক্যান করার পরই বলা হয়েছিল অস্ত্রোপচার করাতে হবে তাঁকে। কিন্তু চলতি বছরের শেষে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে চাহার চাইছেন না অস্ত্রোপচার করাতে। তবে, আইপিএলে খেলতে পারবেন কিনা, তা নিয়েই ছিল অনিশ্চয়তা। আপাতত আট সপ্তাহের জন্য জাতীয় ক্রিকেট অ্য়াকাডেমিতে রিহ্যাব করছেন তিনি। তার পরই তিনি ফিট হয়ে যাবেন, এমনই বলা হচ্ছে। সে কথা মানলে, এপ্রিলের মাঝামাঝি সময়ই টিমে ফিরবেন চাহার।

২৬ মার্চ আইপিএল ১৫-র উদ্বোধনী ম্যাচে কলকাতা নাইট রাউইডার্সের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচ চেন্নাইয়ের। সে দিকে তাকিয়ে সুরাটে এখন প্রস্তুতি চলছে ধোনিদের। এনসিতে থাকলেও সিএসকের টিম ম্যানেজমেন্ট চাইছে চাহার যেন টিমের সঙ্গে দ্রুত যোগ দেন। তা হলে তাঁর চোটের কি হাল, কত দ্রুত ফিট হতে পারবেন, তা নজরে রাখতে পারবে টিম ম্যানেজমেন্ট।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × four =