প্রধানের স্বামীর বিরুদ্ধে দাদাগিরির অভিযোগ, চক্রান্তের দাবি বিজেপির

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাঁকুড়া: বিজেপি পরিচালিত গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের স্বামীর বিরুদ্ধে দাদাগিরির অভিযোগ তুলে বিডিওর দ্বারস্থ স্বনির্ভর দলের সংঘ নেত্রীরা, পালটা রাজনৈতিক চক্রান্তের অভিযোগ পঞ্চায়েত প্রধানের। রাজনৈতিক তরজা, অভিযোগ খতিয়ে দেখার আশ্বাস প্রশাসনের।
বাঁকুড়ার ছাতনা ব্লকের তেঘরি গ্রাম পঞ্চায়েত দখল করে বিজেপি। এরপর থেকেই স্থানীয় স্বনির্ভর দলগুলির পরিচালক সংঘের সঙ্গে কার্যত সংঘাত শুরু হয় গ্রাম পঞ্চায়েতের। সংঘের নেত্রীদের দাবি, সম্প্রতি স্বনির্ভর দলগুলির একটি প্রশিক্ষণ শিবিরকে ঘিরে পরিস্থিতি চরমে ওঠে। সংঘের নেত্রীরা সম্প্রতি ছাতনা ব্লক প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়ে লিখিত অভিযোগ জানান গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের স্বামী সুব্রত মণ্ডলের বিরুদ্ধে।
সংঘ নেত্রীদের দাবি, স্বনির্ভর দলগুলি পরিচালনা করার প্রতিটি ক্ষেত্রে বাধা দিচ্ছেন পঞ্চায়েত প্রধানের স্বামী। কিছুক্ষেত্রে সংঘ নেত্রীদের কুকথাও বলছেন তিনি। আগামী দিনে যাতে এই ধরনের ঘটনা না ঘটে বিডিওর কাছে সেই আবেদন জানিয়েছেন সংঘ নেত্রীরা। অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে গোটা ঘটনাটিকে রাজনৈতিক চক্রান্ত বলে দাবি করেছেন বিজেপি পরিচালিত ওই পঞ্চায়েতের প্রধান ও উপপ্রধান।
তাঁদের দাবি, সংঘর কাজের সঙ্গে পঞ্চায়েতের কোনও সম্পর্ক নেই। অভিযোগকারী সংঘ নেত্রী তৃণমূলের নির্বাচিত সদস্য। রাজনৈতিক কারণে তাঁদের হেনস্থা করতেই এই মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে। ছাতনা পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি তথা তৃণমূল নেতা পঞ্চায়েত প্রধান ও তাঁর স্বামীর ভূমিকা নিয়ে কড়া সমালোচনা করেছেন। ছাতনা ব্লক প্রশাসন সংঘ নেত্রীদের অভিযোগ খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *