‘অশনি’ সংকেত, বৃষ্টির জল জমে ভোগান্তির আশঙ্কা কলকাতায়, ছুটি বাতিল পুরকর্মীদের

কলকাতা: বঙ্গোপসাগরে ক্রমেই ঘনীভূত হচ্ছে নিম্নচাপ, বাড়ছে ঘূর্ণিঝড় অশনির শক্তি। মঙ্গলবারই অন্ধ্রপ্রদেশ ও ওড়িশার উপকূলবর্তী এলাকায় আছড়ে পড়তে পারে সাইক্লোন। কলকাতায় এর তেমন দাপট থাকবে না বলেই পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর, তবে হতে পারে ভারী বৃষ্টি।বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া। কলকাতায় একটু বেলা হতেই বৃষ্টি শুরু হয়ে গিয়েছে। কিছু জায়গায় জলও জমতে শুরু করেছে। ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস থাকায় আগেভাগে পদক্ষেপ করল কলকাতা পুরসভা (KMC)। জরুরি ভিত্তিতে আগামী সপ্তাহে পুরসভার আধিকারিক থেকে নিচুতলার কর্মীদের ছুটি বাতিল করে দেওয়া হয়েছে।

বস্তুত, গত কয়েক বছরে শহরজুড়ে অস্বাভাবিক বেড়ে গিয়েছে জল জমা। গত বছর একটানা বৃষ্টিতে চরম দুর্ভোগে পড়েছিল শহরবাসী। এবছরও ঝড়বৃষ্টির দিন যত এগিয়ে আসছে, বাড়ছে জল জমা নিয়ে আতঙ্ক। দু-এক দিন যা বৃষ্টি হয়েছে কলকাতায়, তাতেই কিছু এলাকায় জল জমেছে কিছুক্ষণের জন্য। আসন্ন ভারী বৃষ্টির জেরে শহর কলকাতার কোনও এলাকায় যাতে বেশিক্ষণ জল না জমে থাকে, তা নিশ্চিত করতেই শনিবার ডিজি (নিকাশি)-কে নির্দেশ দিয়েছেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম (KMC)। একইসঙ্গে বাতিল হয়েছে কর্মীদের ছুটি।

কলকাতা পুরসভা সূত্রের খবর, নবান্ন থেকে সরাসরি সতর্কবার্তা এসেছে পুরসভায়। বার্তা পাঠিয়েছেন খোদ মুখ্যসচিব। দুর্যগ পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে। তারপরেই আধিকারিক ও কর্মীদের ছুটি বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে শুধু নবান্ন নয়, আলিপুর আবহাওয়া দফতর থেকেও কলকাতা পুরসভাকে (KMC) আগাম প্রস্তুতি নিতে বলেছে। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস বলছে, মঙ্গলবার থেকে দক্ষিণবঙ্গ-সহ কলকাতায় ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। ১০ থেকে ১৩ মে পর্যন্ত গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে। পাশাপাশি, ১১ থেকে ১৩ মে পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী জেলাগুলির কয়েকটি জায়গায় ভারী বৃষ্টি হতে পারে বলেও মৌসম ভবনের তরফে জানানো হয়েছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twelve + four =