আরসিবি জিতলেও ধীর গতির ব্যাটিংয়ের জন্য সমালোচিত বিরাট

গত দুই ম্যাচে রানের মুখ দেখেছেন। তবুও সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রবলভাবে সমালোচিত তিনি। কারণ বিরাট কোহলির ব্যাটিং মোটেও ‘কোহলি সুলভ’ নয়। গত দুই ম্যাচে তাঁর স্ট্রাইক রেটের দিকে চোখ রাখলেই সেটা জলের মতো পরিস্কার হয়ে যায়। আর তাই চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে জিতলেও, রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের প্রাক্তন অধিনায়ককে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হচ্ছে। গত ম্যাচে ৩৩ বল খেলে ৩০ রান করেছেন। এর মধ্যে ৩টি চার ও একটি ছক্কা হাঁকিয়ে ছিলেন তিনি। স্ট্রাইক ছিল ৯০.৯০। গুজরাত টাইটান্সের বিরুদ্ধে ৫৩ বলে ৫৮ রান। সেই ম্যাচে তাঁর স্ট্রাইক রেট ছিল ১০৯.৪৩।

তাঁর এমন ধীর গতির ইনিংসে ক্ষুব্ধ হয়েছেন ভক্তরাও। সিএসকে-র বিরুদ্ধে আউট হওয়ার আগে অধিনায়ক ফ্যাফ ডু’প্লেসির সঙ্গে ৪৪ বলে ৬২ রানের জুটি গড়েছিলেন বিরাট। তবে শুধু ধীর গতির ইনিংস নয়, মঈন আলির অফ ব্রেক বুঝতে না পেরে বোল্ড হওয়ার ধরণ অনেকেই মেনে নিতে পারছেন না। এমতাবস্থায় ভক্তরা নিজেদের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। নেটিজেনরা বিরাটের ব্যাটিং নিয়ে সমালোচনা করেছেন। অনেকেই লিখেছেন যে বিরাট কোহলি টেস্টের মতো খেলছেন। তাঁর অবিলম্বে বিরতি নেওয়া উচিত।

এখনও পর্যন্ত ১১ ম্যাচে বিরাট মাত্র ২১৬ রান করেছেন। গড় ২১.৬০। স্ট্রাইক রেট ১১১.৯১, যা একেবারেই বিরাট কোহলি সুলভ নয়। প্রথম ৯ ম্যাচে মাত্র ১২৮ রান (৪১, ১২, ৫, ৪৮, ১,১২, ০, ০, ৯) রান করেছিলেন তিনি। এরমধ্যে আবার পরপর দুই ম্যাচে হয়েছেন ‘গোল্ডেন ডাক’ও! অর্থাৎ ফিরেছিলন প্রথম বলেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty + 8 =