শেষ মুহূর্তে দিল্লি সফর বাতিল মুখ্যমন্ত্রীর, ‘এক দেশ, এক ভোট’ সংক্রান্ত বৈঠকে অংশ নেবেন সুদীপ ও কল্যাণ

সোমবার বিকেলেই দিল্লি যাওয়ার কথা ছিল তাঁর। মঙ্গলবার যোগ দেওয়ার কথা ছিল ‘এক দেশ, এক ভোট’ সংক্রান্ত বৈঠকে। কিন্তু একেবারে শেষ মুহূর্তে তাঁর প্রস্তাবিত দিল্লি সফর বাতিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা অধিকারিকেরাও রাজধানীতে পৌঁছে গিয়েছিলেন। কিন্তু শেষ মুহূর্তে সাংবাদিক বৈঠক করে মুখ্যমন্ত্রী সফর বাতিলের কথা জানান। নবান্নে সাংবাদিকদের তিনি জানান, বৃহস্পতিবার রাজ্য বাজেট পেশ করা হবে। জরুরি পরিস্থিতি চলছে। তাই এখন দিল্লি যেতে পারছেন না।
উল্লেখ্য এক দেশ এক ভোট’ প্রস্তাব বিবেচনার জন্য প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের নেতৃত্বে একটি কমিটি তৈরি হয়েছে। ওই কমিটির ডাকা বৈঠকে যোগ দিতেই মুখ্যমন্ত্রীর একদিনের জন্য দিল্লিতে যাওয়ার কথা ছিল । এদিন সাংবাদিক বৈঠক করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, নিজের অপারগতার কথা তিনি রামনাথ কোবিন্দকে জানিয়েছেন। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এতে সম্মতি জানিয়েছেন। তাঁর বদলে সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং কল্যাণ ব¨্যােপাধ্যায় ওই বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন বলে মুখ্যমন্ত্রী জানান। যদিও ‘এক দেশ, এক ভোট’ সংক্রান্ত বিষয়ে মমতা এর আগেই তাঁর অবস্থান স্পষ্ট করেছেন। তাঁর বক্তব্য, ‘এক দেশ, এক ভোট’-এর অর্থ দেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে সঙ্কুচিত করা। যা আসলে সামগ্রিক ভাবে সংবিধান বদলের নামান্তর।
মুখ্যমন্ত্রীর দিল্লি সফর নিয়ে রাজনৈতিক মহলে গত কয়েক দিন ধরে বিস্তর আলোচনা ছিল। তৃণমূলের অনেকেও মুখ্যমন্ত্রীর সূচি নিয়ে স্পষ্ট কিছু বলতে পারছিলেন না। অন্য দিকে বাম, কংগ্রেস নেতারা বলতে শুরু করেছিলেন, ‘বোঝাপড়া’ করার উদ্দেশেই দিল্লি যেতে হচ্ছে মমতাকে। প্রদেশ কংগ্রেসের অনেক নেতার ‘আশঙ্কা’ ছিল, দিল্লি গিয়ে কংগ্রেস নেত্রী সনিয়া গান্ধীর সঙ্গেও মমতা দেখা করতে পারেন। যদিও শেষ পর্যন্ত সফর বাতিল করলেন মমতা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *