অসমে পুর নির্বাচনে বিজেপি-ঝড়ে বিধ্বস্ত বিরোধীরা

অসমে পুর নির্বাচনে (Assam Municipal Election) বিজেপি-ঝড়ে বিধ্বস্ত বিরোধী। বলতে গেলে নিশ্চিহ্ন হয়ে গিয়েছে কংগ্রেস, এআইইউডিএফ এবং রাইজর দল। বুধবার নির্ধারিত সকাল আটটা থেকে কড়া নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে অসমের ৩৬টি জেলার অন্তর্গত ৮০টি পুরসভা নির্বাচনের গণনা পর্ব শুরু হয়। মোট ৯৭৭টি ওয়ার্ডের ভোট-গণনার শুরু থেকেই এক এক করে পুরসভায় বিজেপি প্রার্থীদের জয়জয়কার। এই খবর লেখা পর্যন্ত রাজ্যের ৮০টি পুরসভার মধ্যে বিজেপির দখলে গিয়েছে ৭৬টি। পূর্ণাঙ্গ তালিকা এখনও পাওয়া যায়নি। এই জয়ের জন্য অসমের জনগণ ও মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালে রজ্যের পুর নিৰ্বাচনের কথা ছিল। কিন্তু কোভিড পরিস্থিতির জন্য সময়মতো অনুষ্ঠিত হয়নি পুর নিৰ্বাচন। পরবর্তীতে শিলচর পুরসভা ছাড়া গত ৬ মাৰ্চ রাজ্যের ৮০টি পুরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। মোট ৯৭৭টি ওয়াৰ্ডে ২৫৩২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হয়েছিলেন।

প্রসঙ্গত, এবারই প্রথম পুরসভার নিৰ্বাচনে ব্যালট পেপারের পরিবর্তে ইভিএম-এ (EVM) ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে ২,০৫৪টি ভোটকেন্দ্রে। এবার পুর নির্বাচনের ময়দানে অবতীর্ণ হয়েছিলেন বিভিন্ন দলের ২,৫৩২ জন প্রার্থী। তাঁদের মধ্যে ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)-র ৮২৫, কংগ্রেসের ৭০৬, রাজ্যে বিজেপি সরকারের শরিক দল অসম গণ পরিষদ (অগপ)-এর ২৪৩ জন, অল ইন্ডিয়া ইউনাইটেড ডেমোক্ৰ্যাটিক ফ্ৰন্ট (এআইইউডিএফ)-এর ১৭ জন, কয়েকটিতে সিপিআই (এম), রাইজর দল এবং বহু নিৰ্দলীয় প্ৰাৰ্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। তবে এঁদের মধ্যে ৬০ জন ইতিমধ্যে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছিলেন। এবার নতুনদের নিয়ে গোটা রাজ্যে মোট ভোটার ছিলেন ১৬,৭৩,৮৯৯ জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × 1 =