শিল্প হওয়া নিয়ে বারে বারে বাংলার যুবকদের বোকা বানিয়েছেন কিন্তু শিল্প হয়নি, সিঙ্গুরে দাঁড়িয়ে মন্তব্য বিজেপি নেতা সুকান্ত মজুমদারের

একদিকে কলকাতায় যখন বাংলায় শিল্পপতিদের বিনিয়োগের জন্য বিশ্ব বাণিজ্য সম্মেলন হচ্ছে, তখন অন্যদিকে হুগলির সিঙ্গুরে  টাটাদের ফেলে যাওয়া পরিত্যক্ত জমিতে যেখানে মাছের ভেরি হচ্ছে সেখানে দাঁড়িয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার বাংলায় শিল্পে বিনিয়োগ নিয়ে রাজ্য সরকারের ভূমিকা নিয়ে কটাক্ষ করেন। এদিন সিঙ্গুরের মাটিতে ফের  শিল্পের ডাক দিতে  বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার মোটরবাইকে চেপে গোপালনগরে একদা টাটাদের প্রকল্প এলাকায় যান এবং চাষিদের দুর্দশার কথা তুলে ধরার পাশাপাশি মাছের ভেরি তৈরি হওয়ার প্রতিবাদ জানান। এই বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার বলেন, রাজ্যে বিজেপি সরকার আসুক, যদি কৃষকরা এখানে শিল্প করতে চান, তাঁদের মনে হয় যে এখন আমরা শিল্পের পক্ষপাতী। আমরা ৬ মাস থেকে ১ বছরের মধ্যে…আমি ব্যক্তিগতভাবে গ্যারান্টি দিচ্ছি, ১ বছরের মধ্যে এই জমিতে শিল্প করে দেখাব। আমি শিল্পপতি ডেকে আনব। বিনিয়োগকারী আছে। প্রসঙ্গত, কয়েক মাস আগে সিঙ্গুরে শিল্পের জমিতে বড় বড় জলাশয় তৈরি করে মাছের ভেরি তৈরি ঘিরে বিতর্ক বাধে। সেই সিঙ্গুরেই শিল্পের প্রতিশ্রুতি দিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। তিনি কলকাতায় বিশ্ববঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলন নিয়ে কটাক্ষ করে বলেন, বাংলার মুখ্যমন্ত্রী ২০১৭ সালেও একটা কোটি টাকা খরচ করে বিজনেস সামিট হয়েছিল। কোনও শিল্প হয়নি। বারে বারে মিথ্যা কথা বলেন। বাংলার যুবকদের বোকা বানিয়েছেন। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, তিনি শিল্প আনার জন্য শিল্প সামিট করছেন। আর ছোট শিল্পপতি বা ব্যবসায়ী শহরের মধ্য গুলিবিদ্ধ হচ্ছেন। সহজেই বুঝতে পারছেন রাজ্যের অবস্থা। সবমিলিয়ে আবারও সিঙ্গুরের মাটিতে দাঁড়িয়ে বিজেপি নেতা সুকান্ত মজুমদার চাষিদের সম্মতি নিয়ে শিল্প করার আশ্বাস দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three + 15 =