পশ্চিম কাবুলের একাধিক স্কুলে পরপর বিস্ফোরণ, মৃত কমপক্ষে ৬ পড়ুয়া, জখম বহু

ফের নাশকতা আফগানিস্তানের (Afghanistan) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। মঙ্গলবার জোরালো বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে কাবুলের (Kabul Blast)  একাধিক স্কুল। বিস্ফোরণে এখনও পর্যন্ত ৬ পড়ুয়ার মৃত্যুর খবর মিলেছে। জখম বহু। তবে বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করেনি কোনও জঙ্গিগোষ্ঠী।

সূত্রের খবর, পশ্চিম কাবুলের (Western Kabul) মুমতাজ স্কুল চত্বর থেকে প্রথম বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়। কেঁপে ওঠে গোটা এলাকা। দ্বিতীয় বিস্ফোরণের খবর মিলেছে দাস্ত-এ-বারচি এলাকার একটি স্কুল থেকে। তবে অন্য একটি সূত্রের খবর, একটি স্কুলেই পর পর তিনটি বিস্ফোরণ হয়। শেষ পাওয়া খবর পর্যন্ত ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। জখম বহু। মৃতদের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

স্থানীয় হাসপাতাল সূত্রে খবর, বিস্ফোরণে গুরুতর জখম অবস্থায় হাসপাতালে যাদের আনা হয়েছিল তাদের মধ্যে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। জখম অন্তত ১৪ জন। এ প্রসঙ্গে কাবুলের কমান্ডারের মুখপাত্র খালিদ জাদরান জানিয়েছেন, ‘একটি হাই স্কুলে পরপর তিনটি বিস্ফোরণ ঘটেছে। শিয়া সম্প্রদায়ভুক্ত বেশ কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে।’ কাবুলের যে অংশে বিস্ফোরণ হয়েছে সেখানে মূলত শিয়া সম্প্রদায়ের মানুষের বাস। মাঝেমধ্যেই এই এলাকায় নাশকতার ঘটনা ঘটে থাকে। এবার নাশকতার নিশানায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।

প্রসঙ্গত, আফগানিস্তানে তুঙ্গে পৌঁছেছে ইসলামিক স্টেট (ISIS) বনাম তালিবান লড়াই। কয়েকদিন আগে ইসলামিক স্টেটের খোরাসান শাখার প্রাক্তন প্রধান আবু ওমর খোরাসানিকে হত্যা করে তালিবান। গত অগস্ট মাসে কাবুল বিমানবন্দরে ভয়াবহ আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটায় ইসলামিক স্টেট। এই বিস্ফোরণের পিছনেও খোরাসানের দায় রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 + six =