বিস্ফোরণে প্রায় ধ্বংস্তূপে পরিণত হাভানার ঐতিহ্যবাহী সারাটোগা হোটেল, মৃত্যু কমপক্ষে ২২ জনের, জখম বহু

কিউবার রাজধানী হাভানায় (Havana) ঐতিহ্যবাহী সারাটোগা হোটেলে ভয়াবহ বিস্ফোরণে (Blast) মৃত কমপক্ষে ২২ জনের। গ্যাস লিক করেই ওই বিস্ফোরণ হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে অনুমান। যদিও এই ঘটনার নেপথ্যে নাশকতার আশঙ্কা উড়িয়ে দিয়েছে কিউবা সরকার (Cuba Government)।

হোটেলের সামনে লাগানো সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, একটি সাদা রঙের গ্যাস পরিবহণের ট্যাংকার (Gas Tanker) হোটেলে ঢুকছে। তার পরই বিশাল বিস্ফোরণ। তা হলে কি গ্যাস ট্যাংকার থেকেই গ্যাস লিক করায় বিস্ফোরণ হল? তা এখনও স্পষ্ট নয়। বিস্ফোরণের অভিঘাতে এক শিশু-সহ ২২ জনের ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়। ১৪ শিশু-সহ ৭৬ জনকে গুরুতর জখম অবস্থায় নিকটবর্তী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হোটেলের ধ্বংসস্তূপের তলায় এখনও অনেকে আটকে থাকতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে। যদিও সেই সময় হোটেলে কোনও বিদেশি আবাসিক ছিলেন না।

কিউবার প্রেসিডেন্ট মিগুয়েল ডিয়াজ কানাল বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন, বিস্ফোরণের পিছনে নাশকতার কোনও প্রমাণ মেলেনি। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, গ্যাস লিক করেই এই বিস্ফোরণ ঘটেছে। তদন্ত চলছে। একই সঙ্গে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় চলছে ধ্বংসস্তূপ সরানোর কাজও।

রাজধানী হাভানার পুরনো পাড়ায় ৯৬ ঘরের সারাটোগা হোটেল। উনিশ শতকে তৈরি এই ঐতিহ্যবাহী হোটেল দীর্ঘ দিন ধরেই হাভানার অন্যতম দৃষ্টিনন্দন স্থাপত্য হিসেবে চিহ্নিত। বিভিন্ন সময়ে কিউবা সফরে গিয়ে এই হোটেলেই থেকেছেন দেশবিদেশের বহু বিখ্যাত মানুষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × two =