অভিজিতের বিজেপিতে যোগদানের পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় খোঁচা তৃণমূলের

তৃণমূলের সোশ্যাল মিডিয়া থেকে একটি পোস্ট শেয়ার করা হয়-সেখানে লেখা ‘মাই লর্ড’। তাতে এল এবং আরডি-র মধ্যে ও-এর জায়গায় হাজির পদ্মফুল। চোখ টেপা ইমোজি দিয়ে ক্যাপশানেও কেরামতি- ‘যদি জানেন, তাহলে জানবেন’। মোদ্দা কথায়, খোলসা করে সবটা না বলেও আক্রমণ যে স্যাপ্রন ব্রিগেডকেই তা বুঝতে কারও অসুবিধে হওয়ার কথা নয়, হয়ওনি।

এদিন রাজনৈতিক মহল সরগরম প্রাক্তন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের বিজেপিতে যোগদান নিয়ে। আর এরই প্রেক্ষিতে সরব হয়েছেন শশী পাঁজা। তৃণমূল নেত্রী বলেন, ‘যখন বিভিন্ন মামলাগুলি তাঁর এজলাসে চলছিল সেই সময় চলছিল রাজনৈতিক মন্তব্যও। বিচারপতির আসন আপনাকে রক্ষাকবচ দিয়েছিলেন। কিন্তু, এর বাইরে একাধিক উক্তি করেন।

আজ দিনের আলোর মতো পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে, বিচারপতি থাকাকালীন তাঁকে রাজনৈতিক দল যোগাযোগ করেছিল, তিনিও করেছিলেন।’ একইসঙ্গে মন্ত্রী শশী পাঁজার আক্রমণ ‘ওঁকে অসহিষ্ণু মনে হচ্ছে। মনে হচ্ছে অনেক তাড়ায় রয়েছেন।’ এদিকে অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় এদিন বলেছিলেন, ‘দল যা দায়িত্ব দেবে তা নিষ্ঠা ভরে পালন করব।’ দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য তিনি রাজনীতিতে এসেছেন বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *