ধর্ষণ এবং মৃত্যুতে প্ররোচনার অভিযোগ,অভিযুক্ত বিজেপি নেতাকে বহিষ্কারের দাবি একাংশের

নিজস্ব প্রতিবেদন, বিষ্ণুপুর: সোনামুখীর বিজেপি নেত্রীকে ধর্ষণ এবং মৃত্যুতে প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ ওঠে বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা বিজেপির সম্পাদক তরুণ সামন্তের বিরুদ্ধে, যা নিয়ে লোকসভা নির্বাচনের আগে চরম অস্বস্তিতে পড়ে বিজেপি। এবার জেলা সভাপতির অপর গোষ্ঠীর বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা কার্যালয়ে মৃত বিজেপি নেত্রীর শোক পালন নিয়ে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে এল বলে দাবি।
রবিবার সন্ধ্যায় বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা বিজেপির দলীয় কার্যালয়ে সাংগঠনিক জেলার সম্পাদক এবং ওবিসি মোর্চার সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে একটি শোক পালনের অনুষ্ঠান করা হয়। অভিযোগ, সেখানে ওবিসি মোর্চার সাধারণ সম্পাদককে বলতে শোনা যায়, দীর্ঘদিন যাবত কোনও এক নেতৃত্ব তাঁর ওপর মানসিক পাশবিক এবং শারীরিক অত্যাচার চালিয়ে গিয়েছে তাঁকে মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, আরও উন্নততর পদ দেওয়ার। যে কারণেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে।
সোমবার তাঁদের দাবি, অভিযুক্ত বিজেপি নেতা জেলা সভাপতি এবং বিজেপি সাংসদদের গোষ্ঠীর লোক, এমনকি তাঁরা দাবি করেন, এখনও কেন অভিযুক্ত বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না তা তাঁদের জানা নেই। অবিলম্বে তাঁকে দল থেকে বহিষ্কার করা দরকার। বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা বিজেপির সভাপতি অমরনাথ শাখার দাবি, ওই বিজেপি নেত্রী গত ২৩ তারিখ মারা গিয়েছেন। এদিন এই ধরনের কাজ যাঁরা করছেন, মানসিক ভাবে তাঁরা বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। অভিযুক্ত বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে রাজ্য সভাপতিকে জানানো হয়েছে তিনি যা বলবেন তাই হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *