চলন্ত ট্রেন থেকে পড়ে নির্ঘাৎ মৃত্যুর মুখোমুখি হত হল এক মহিলা

মদন মাইতি, কাঁথি : চলন্ত ট্রেন থেকে পড়ে নির্ঘাৎ মৃত্যুর মুখোমুখি হত হল এক মহিলা। ট্রেনের অন্যান্য যাত্রীরা চেন টেনে ট্রেন থামিয়ে ওই মহিলাকে উদ্ধার করেন। ঘটনার জেরে তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়েছে দিঘা-মেচেদা রেলপথে৷ যাত্রীদের সহযোগিতায় রেল পুলিশ ওই ট্রেনে করেই জখম মহিলাকে নিয়ে আসে কাঁথি স্টেশনে৷ সেখান থেকে নিয়ে যাওয়া হয় কাঁথি মহকুমা হাসপাতালে৷

সূত্রের খবর, জখম মহিলার নাম লক্ষ্মী হালদার। বাড়ি, পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পাঁশকুড়া থানার কনকপুর গ্রামে৷ জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে দিঘা থেকে লোকাল ট্রেনে মেছেদার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলেন ওই মহিলা৷ সঙ্গে ছিল তাঁর সাড়ে তিন বছরের শিশুপুত্র। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দিঘা-কাঁথি রেলপথে আশাপূর্ণা স্টেশনের সংলগ্ন এলাকায় চলন্ত ট্রেন থেকে পড়ে যায় ওই মহিলা। যদিও কী কারনে এই ঘটনা ঘটেছে সে বিষয়ে প্রকাশ্যে মুখ খুলতে নারাজ যাত্রীরা।

ওই মহিলার রক্তাক্ত, বিধ্বস্ত অবস্থা দেখে পাশে বসে কান্নায় ভেঙে পড়ে সাড়ে তিন বছরের শিশুপুত্র। পরে সহযাত্রীরাই ওই শিশু ও তাঁর মাকে ওই ট্রেনে করে কাঁথি স্টেশনে নিয়ে আসেন৷ ইতিমধ্যে প্রকৃত ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রেল পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fifteen − 12 =