মহানন্দা ও ফুলহার নদীর চর থেকে বালি পাচারের অভিযোগে গ্রেপ্তার ৪

হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার মহানন্দা এবং ফুলহার নদীর চর থেকে বালি পাচারের অভিযোগে চারজনকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। এই ঘটনায় চারটি বালি ভর্তি ট্রাক্টর আটক করেছে পুলিশ। হরিশ্চন্দ্রপুরের ফুলহার এবং মহানন্দা নদী চর থেকে দীর্ঘদিন ধরে বেআইনিভাবে বালি পাচারের অভিযোগ উঠেছিল। আর সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই অভিযান চালায় সংশ্লিষ্ট ব্লক ভূমি ও ভূমি রাজস্ব দপ্তর এবং পুলিশ। এরপরই এই বেআইনি বালি পাচারের অভিযোগে ওই চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, হরিশ্চন্দ্রপুর সীমান্ত-সংলগ্ন বিহার এলাকায় এই বালি বেআইনিভাবে পাচার করার কাজ করছিল অভিযুক্তেরা।

ঘটনাটি ঘটেছে, হরিশ্চন্দ্রপুর থানার দৌলতনগর গ্রাম-পঞ্চায়েত এলাকার ভালুকা গোবরা ঘাটে। অভিযোগ সেখানে দীর্ঘদিন ধরেই ফুলহার এবং মহানন্দা নদীর তীর থেকে বালি কেটে বেআইনিভাবে পাচার করা হচ্ছিল। এদিন সকালে ট্রাক্টর বোঝাই করে বেআইনিভাবে বালি নিয়ে যাওয়ার পথে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ আটক করে বালি ভর্তি চারটি ট্রাক্টরকে।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতদের নাম মহম্মদ কুসবান (৩০),  জুলফিকার শেখ (২০), আলাউদ্দিন শেখ (৩১) এবং আতিউর রহমান ( ২০)।  এমনকী, এর আগেও অবৈধভাবে মাটি কেটে সেই মাটি বিহারে পাচারের অভিযোগ উঠেছিল। এক্ষেত্রে বেআইনিভাবে বালি বিহার ছাড়া আর কোথায় কোথায় পাচার করা হত বা সমগ্র চক্রটিতে কারা কারা জড়িত রয়েছে তা খতিয়ে দেখছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ।

হরিশ্চন্দ্রপুর থানার আইসি সঞ্জয় কুমার দাস জানিয়েছেন, বেআইনিভাবে বালি কাটা হচ্ছিল। খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বালি সহ চারটি ট্রাক্টর ও চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

7 + eleven =