বড়দিনে কমতে পারে শীত, কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বাড়তে পারে ২-৩ ডিগ্রি

শীত এসেছে বঙ্গে। উত্তরবঙ্গ থেকে দক্ষিণবঙ্গ, রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে জাঁকিয়ে বসেছে ঠাণ্ডা। মহানগরী কলকাতাতেও সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি কম রয়েছে। এ ছাড়া বিভিন্ন জেলায় ঠাণ্ডার কামড় আরও বেশি। আগামী ২৪ ঘণ্টায় আকাশ পরিষ্কারই থাকবে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টিপাত হয়নি রাজ্যে। আগামী ২৪ ঘণ্টাতেও বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। আগামী কয়েক দিন ঠাণ্ডা বজায় থাকলেও বড়দিনের সময় এই ঠান্ডার আমেজে বাধা পড়তে পারে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস।
আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৫.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস কম। অন্যদিকে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নেমেছে ১৪.১ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। যা স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি কম। কিন্তু বড়দিনের সময়ে এই ঠাণ্ডার আমেজ কিছুটা কমতে পারে। বঙ্গোপসাগর থেকে রাজ্যে জলীয় বাষ্প ঢুকে ঠাণ্ডার আমেজ নষ্ট করতে পারে। সে সময় কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা পৌঁছে যেতে পারে ১৬-১৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। পুরুলিয়া, বাঁকুড়ার মতো পশ্চিমের জেলাগুলিতেও তাপমাত্রা ৩-৪ ডিগ্রি বাড়ার সম্ভবনা রয়েছে।
কলকাতা ও সংলগ্ন জেলাগুলির তাপমাত্রা ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অন্যদিকে পশ্চিমের জেলাগুলিতে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি থাকবে। কোথাও ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে গিয়েছে তাপমাত্রা। পশ্চিমের জেলাগুলিতে শীতের কাঁপুনি। পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর, পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম জেলায় শীতের কামড় বজায় থাকবে। পার্বত্য জেলাগুলিতে পারদ নিম্নমুখী। সমতলের জেলাগুলিতে তাপমাত্রা একই রকম থাকবে। হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশা থাকবে দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার ও উত্তর দিনাজপুর জেলাতে। তবে কুয়াশার বেশি সম্ভাবনা কোচবিহারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *