শেখ শাহজাহানের বাড়িতে গতিবিধি কাদের! হাইকোর্টের নির্দেশে সিসিটিভি বসল বাড়িতে

সন্দেশখালিতে ইডির ওপর হামলার ঘটনায় ৭ জন গ্রেপ্তার হলেও, অধরা তৃণমূল নেতা শেখ শাহজাহান। ইডি তার বিরুদ্ধে অনুগামীদের উস্কানি দিয়ে বিশৃঙ্খলা তৈরি ও হামলা চালানোর অভিযোগ এনেছে।

এই ঘটনায় কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ ছিল তৃণমূল নেতা শেখ শাহজাহানের বাড়িতে বসাতে হবে সিসিটিভি ক্যামেরা। সেই অনুযায়ী বসানো হল সিসিটিভি। মঙ্গলবার হাইকোর্টের বিচারপতি জানিয়েছিলেন, ওই বাড়িতে কাদের আনাগোনা আছে, তাদের গতিবিধি কী, তা লক্ষ্য করার প্রয়োজন আছে। সেই কারণেই সিসিটিভি দরকার। সেই পরিপ্রেক্ষিতেই রাতেই সিসি ক্যামেরা বসানো হয় শেখ শাহজাহানের বাড়িতে ও আশপাশে।

গত ৫ জানুয়ারি সন্দেশখালির নেতা শাহজাহানের বাড়িতে তল্লাশি চালাতে গিয়ে আক্রান্ত হন এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের তদন্তকারীরা। গ্রামবাসবাসীদের হামলায় গুরুতর জখম হন তিন ইডি কর্তা। এই ঘটনায় এখন প্রবল উত্তেজনা রাজ্যে। এখনও পর্যন্ত শাহজাহানকে ধরতে পারেনি ইডি। তার ওপর তাঁকে গ্রেপ্তার করতে না পারায় রাজ্য পুলিশও কলকাতা হাইকোর্টের ভর্ৎসনার মুখে পড়ে।

সূত্রের খবর, তৃণমূল নেতার বাড়ি ছাড়াও তাঁর পাড়ার মোড়ে সিসি ক্যামেরা বসানো হয়েছে। এছাড়া তাঁর বাড়ির লাগোয়া গ্যারাজে বসানো হয়েছে একটি মনিটর। অন্যদিকে রাজ্য পুলিশের তদন্ত বন্ধ করে অবিলম্বে এনআইএ বা সিবিআইকে ঘটনার তদন্তভার দেওয়ার দাবি ইতিমধ্যেই জানিয়েছেন ইডির আইনজীবী। এক্ষেত্রে কলকাতা হাইকোর্ট জানতে চেয়েছিল তাঁরা পুনরায় ঘটনাস্থলে অর্থাৎ শাহজাহান শেখের বাড়িতে যেতে চান কিনা। বিচারপতি এও জানতে চান, ইডি যদি ফের ঘটনাস্থলে যায়, রাজ্য কি সহযোগিতা করবে? রাজ্যের তরফে সম্মতি জানানো হয় মামলার শুনানিতে।

সন্দেশখালিতে গ্রামবাসীদের হাতে ইডির অফিসারদের মারধরের ঘটনার পর ১২ দিন অতিক্রান্ত। মঙ্গলবারই এই মামলার শুনানির শুরুতেই সরকারি আইনজীবীর উদ্দেশে বিচারপতি সেনগুপ্ত জানতে চেয়েছিলেন, ‘মূল অভিযুক্ত এখন গ্রেপ্তার হয়নি, পুলিশ কী করছে?’

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *