মন্থর পিচের জন্য পিসিবি প্রধানকে একহাত নিলেন ওয়াসিম আক্রম

রাওয়ালপিণ্ডি টেস্ট শেষ হয়ে করাচি টেস্টে বল গড়িয়েছে। চলতি পাকিস্তান-অস্ট্রেলিয়া টেস্ট সিরিজের পিচ নিয়ে সমালোচনা সর্বত্র চলছে। অত্যন্ত মরা পিচ বানানোর জন্য পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে ধুয়ে দিচ্ছেন প্রাক্তন ক্রিকেটাররা। ইনজামাম-উল-হক থেকে শুরু করে শাহিদ আফ্রিদ ও মহম্মদ হাফিজের মতো মহারথীরা বিষোদগার করেছেন। এবার সেই তালিকায় ওয়াসিম আক্রম। পাক কিংবদন্তি পেসার এবার একহাত নিলেন পিসিবি প্রধান রামিজ রাজাকে।

এক অনুষ্ঠানে এসে রীতিমতো ক্ষোভ উগড়ে দিলেন আক্রম। তিনি বলেন, “আমাদের সময়ে ম্যাচে পিচ কেমন হবে, তার অনেকটা নির্ভর করত ক্যাপ্টেনের ইচ্ছার ওপর। রাওয়ালপিণ্ডি ও করাচি টেস্ট দেখার আমি চেষ্টা করেছি, কিন্তু পারিনি। একজন প্রাক্তন ফাস্টবোলার হিসাবে আমি দ্বিতীয় ডেলিভারি করার পরেই বুঝে যেতাম এই টেস্ট ড্র হবে। আমাদের সময়ে যখন ওয়েস্ট ইন্ডিজ পাকিস্তানে খেলতে আসত, ইমরান খান আমাদের অধিনায়ক ছিলেন, উনি মন্থর গতির পিচ বানাতে বলতেন।”

পিচ তৈরি করার প্রক্রিয়া নিয়েও কথা বলেন আক্রম। তাঁর সংযোজন, “স্লো ট্র্যাক বানানোরও একটা প্রক্রিয়া থাকে। সেটা করা হয় টেকনিক্যাল দিকটা মাথায় রেখে। পিচের কেন্দ্রে রোল কম করা হয়। ফ্রন্ট ফুটে খেলার জায়গা কিছুটা শুষ্ক রাখা হয়। তাহলে প্রথম দিন থেকেই বল ঘোরে। যদি মন্থর গতির পিচ বানাতেই হয়, তাহলে ন্যূনতম সেটিকে টার্নার পিচ বানাতে হয়, তাহলে ম্যাচে ফলাফল হয়। আমি জানি না কে পিচ বানিয়েছে, আশা করি তারা এখান থেকে শিখবে। সত্যি বলতে অত্যন্ত বোরিং এই পিচ।”

রামিজ রাজা যদিও কিছুদিন আগে এই মরা পিচের ব্যাখা দিয়েছেন। তিনি জানিয়ে ছিলেন যে, তিনি গত সেপ্টেম্বরে পিসিবি প্রধানের দায়িত্ব নিয়েছিলেন। তখন ক্রিকেটীয় মরশুম চলছিল। রামিজ জানিয়েছেন, মরশুম শেষ হলে অস্ট্রেলিয়া থেকে মাটি আনিয়ে ৫০-৬০টি পিচ আবার নতুন করে বানাবেন।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen − 4 =