ভোটের পরে তৃণমূলের ট্রিটমেন্ট শুরু, হুঁশিয়ারি বিজেপি বিধায়কের

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাঁকুড়া: ফের তৃণমূলকে হুঁশিয়ারি পদ্ম বিধায়কের। ভোটের পরেই তৃণমূলের ট্রিটমেন্ট শুরু হবে বলে তৃণমূলকে আক্রমণে করে হুঁশিয়ারি ওন্দার বিজেপি বিধায়ক অমরনাথ শাখার। বাঁকুড়ার ওন্দার সানবাঁধার তমালতলায় দলীয় পথসভায় এমনই হুঁশিয়ারির সুর শোনা গেল বিজেপি বিধায়কের গলায়। বিজেপি নেতাদের এটাই সংßৃñতি পালটা কটাক্ষ তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা মণ্ডলের।
রাজনৈতিক মহলের মতে, কুকথা, কুৎসা, হুংকার রাজনৈতিক নেতাদের এখন হাতিয়ার হয়েছে এই বঙ্গে। কখনও শাসকের গলায় এমন সুর আবার কখনও বিরোধীদের গলায় এমন সুর শোনা যাচ্ছে। নির্বাচনের আগে সেই সুরেই তপ্ত হচ্ছে লাল মাটির জেলা। রবিবার সন্ধেবেলায় বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর লোকসভার সানবাঁধা তমালতলায় দলীয় পথসভায় তৃণমূলের ট্রিটমেন্ট শুরু হবে বলে হুঁশিয়ারি দিলেন বিজেপি বিধায়ক অমরনাথ শাখা।
বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁর উপস্থিতিতে প্রকাশ্যে মাইক্রোফোন হাতে নিয়ে বিধায়ক অমরনাথ শাখা বলেন, ‘১০০ দিনের কাজে যদি চোর ধরা হয় তৃণমূলের পুরো টিমটা, সব জেলে ঢুকে যাবে, বংশে বাতি দেওয়ার তৃণমূলে কেউ থাকবে না। আমরা কিন্তু ছেড়ে দেব না, ২৪ এর লোকসভার পরে রেজাল্টের পরে আমরা শুরু করব তৃণমূলের ট্রিটমেন্ট। তৃণমূলের যারা বিভিন্ন দুর্নীতি করে টাকা চুরি করেছে, আমরা তাদের ছাড়ব না।’ এই বক্তব্যের পরে বিধায়ক বলেন, ‘ভোটের পরে দুর্নীতির টাকা আমরা উদ্ধার করতে নামব। তখন যে যেমন দেবতা সে তেমন ফুল পাবে ট্রিটমেন্টে।’
বিজেপি বিধায়কের এই বক্তব্যের কড়া ভাষায় প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন বিষ্ণুপুর লোকসভার তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা মণ্ডল। তিনি বলেন, ‘বিজেপির এই হল শিক্ষা দীক্ষা। এদের এই বক্তব্যগুলো প্রমাণ করে দেয় ওদের রুচি আর সংßৃñতি। ওদের মুখে উন্নয়নের কথা নেই, শুধু মেরে দেব কেটে দেব দেখে নেব এইসব শোনা যায়।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *