বিআরএস নেত্রী কে কবিতার জামিনের আবেদন গ্রহণ করল না সুপ্রিম কোর্ট

আবগারি মামলায় ইডির গ্রেপ্তারিকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছিলেন বিআরএস নেত্রী কে কবিতা। ইডির বিরুদ্ধে বেআইনি গ্রেপ্তারির অভিযোগে জামিনের মামলা শুক্রবার খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট । তেলেঙ্গানার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রশেখর রাওয়ের কন্যাকে নিম্ন আদালতে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছে বিচারপতি সঞ্জীব খান্নার বিশেষ বেঞ্চ।
শুক্রবার কবিতার আবেদন গ্রহণ না করে আদালতের তরফে বলা হয়েছে, তিনি রাজনৈতিক নেত্রী বলে এভাবে সরাসরি সুপ্রিম কোর্টে জামিনের আবেদন জানাতে পারেন না। কবিতাকে অবশ্যই নীতি অনুসরণ করতে হবে। তাঁর জন্য কোনও নিয়ম ভাঙা যাবে না। পাশাপাশি জানানো হয়, জামিনের আবেদন নিয়ে তিনি যেন নিম্ন আদালতে যান। আদালতে আবেদন গ্রাহ্য না হওয়ায় বেশ চাপে বিআরএস নেত্রী।
দিল্লির আবগারি দুর্নীতি মামলায় তেলেঙ্গানার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কন্যার যোগ পেয়ে তদন্তে নামে ইডি। গত ১৫ মার্চ কবিতার হায়দরাবাদের বাড়িতে তল্লাশি ও জিজ্ঞাসাবাদের পর বিকেলে গ্রেপ্তার করা হয় কবিতাকে। ইডির দাবি অনুযায়ী, মণীশ সিসোদিয়ার ঘনিষ্ঠ অমিত আরোরাকে গ্রেপ্তারের পর এই মামলায় যোগ পাওয়া যায় কবিতার। তৎকালীন উপমুখ্যমন্ত্রী মণীশ আবগারি নীতির পরিবর্তন করে দক্ষিণ ভারতে যে ব্যবসায়িক সংস্থাকে সুবিধা পাইয়ে দেয় তার ৬৫ শতাংশের মালিক এই কবিতা। এই দুর্নীতির ষড়যন্ত্রে অরবিন্দ কেজরিওয়াল, মণীশ সিসোদিয়ার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন তিনিও। সুবিধা পেতে আপ নেতাদের ১০০ কোটি টাকা তিনি দেন বলে অভিযোগ ইডির। এদিকে আবগারি দুর্নীতি মামলায় বৃহস্পতিবার রাতে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে গ্রেপ্তার করেছে ইডি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fifteen − nine =