ভাড়াটিয়াদের তাণ্ডবে অতিষ্ঠ শ্যামনগর মণ্ডলপাড়া মনসাতলার বাসিন্দারা

ব্যারাকপুর : রাতভোর বহিরাগতদের আনাগোনা এবং মদ্যপ অবস্থায় বেলেল্লাপনা করার অভিযোগ উঠেছে ভাড়াটিয়াদের বিরুদ্ধে। এমনকী প্রতিবাদ জানালে পড়শিদের দেখে নেওয়ার হুমকি দেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে। স্বভাবতই ভাড়াটিয়াদের তাণ্ডবে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন জগদ্দল থানার অধীনস্থ ভাটপাড়া পুরসভার ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের শ্যামনগর মণ্ডলপাড়া মনসাতলার বাসিন্দারা। অবশেষে নিরুপায় হয়ে শুক্রবার জগদ্দল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। অভিযোগের ভিত্তিতে বিষয়টি খতিয়ে দেখছে জগদ্দল থানার পুলিশ। জানা গিয়েছে, বাড়ির মালিক সুদীপ্ত ঘোষ পরিবার নিয়ে চন্দননগরে থাকেন। আর ওই বাড়ির নিচ ও ওপরতলায় দুটি ভাড়াটিয়া পরিবার বসবাস করেন। পড়শি বিশ্বজিৎ মুখার্জির অভিযোগ, রাত বাড়তেই নিত্যদিন ওই বাড়িতে বহিরাগত পুরুষ ও মহিলাদের আনাগোনা ক্রমশ বাড়ছে।

এমনকী ভোর রাত পর্যন্ত ওই বাড়িতে মদ্যপ অবস্থায় নাচগানাও চলে। প্রতিবাদ করলে পাল্টা ধমকি দেন ভাড়াটিয়ারা। বিশ্বজিৎ বাবুর আরও অভিযোগ, বেলেল্লাপনার প্রতিবাদ করায় বৃহস্পতিবার রাতে ভাড়াটিয়ারা তার বাড়িতে চড়াও হয়। যদিও প্রতিকার চেয়ে শুক্রবার স্থানীয়রা জগদ্দল থানায় অভিযোগও দায়ের করেছেন। ঘটনা নিয়ে জগদ্দল শহর তৃণমূল সভাপতি তথা ভাটপাড়া পুরসভার সিআইসি হিমাংশু সরকার বলেন, শুনেছি গভীর রাত পর্যন্ত ওই বাড়িতে বহিরাগতদের আনাগোনা হচ্ছে। বাধ্য হয়ে এলাকাবাসীরা প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন।

প্রশাসন বিষয়টি খতিয়ে দেখছে। অপরদিকে স্থানীয় কাউন্সিলর সম্পা ব্যানার্জির স্বামী অরুন ব্যানার্জি বলেন, জন্মদিনের পার্টি ঘিরে একদিন গভীর রাত পর্যন্ত গানবাজনা হয়েছিল। সেই জন্মদিনের পার্টি ঘিরে অতিরঞ্জিত কিছু হয়েছিল। তবে অভিযোগ পাওয়া মাত্রই সকলের উপস্থিতিতে ভাড়াটিয়াদের উঠে যেতে বলেছি। অরুন বাবু আরও বলেন, ভাড়াটিয়ার মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি। ভাড়ার মেয়াদ উত্তীর্ণ হলেই বাড়ি ছেড়ে দেওয়ার জন্য ভাড়াটিয়াদের কয়েকদিন আগেই নোটিস করেছেন বাড়ির মালিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *