মোদির সঙ্গে বৈঠকে নতুন সম্পর্কের সূচনা ইউরোপীয় ইউনিয়ন প্রেসিডেন্টের

ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠকে বসলেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের (EU) প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভনডের লিয়েন। সোমবার রাজধানী দিল্লিতে হওয়া ওই বৈঠকে ‘টেকনোলজিক্যাল পাওয়ার হাউস’ ভারতের সঙ্গে নতুন সম্পর্ক তৈরি করার আগ্রহ প্রকাশ করেন ইইউ প্রেসিডেন্ট লিয়েন। ইউক্রেন যুদ্ধের জেরে তৈরি হওয়া রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক সমস্যার বিষয়গুলি আলোচনা হয় দু’জনের মধ্যে বলে খবর।

এদিন টুইটারে বিদেশ মন্ত্রকের (Foreign Ministry) মুখপাত্র অরিন্দম বাগচী লেখেন, ‘আজ দিল্লিতে ইইউ প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভনডের লিয়েনের সঙ্গে বৈঠকে বসেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। ইন্ডিয়া-ইইউ স্ট্র্যাটেজিক পার্টনারশিপের অগ্রগতি খতিয়ে দেখেন দুই প্রধান। এছাড়া, বাণিজ্য, পরিবেশ, ডিজিটাল টেকনোলজি ও জনসম্পর্ক আরও মজবুত করে তোলার বিষয়ে সহমত প্রকাশ করেন দু’জনে।’ তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে, ভারতের সঙ্গে ‘ট্রেড অ্যান্ড টেকনোলজি কাউন্সিল’ গড়ে তোলার বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন উরসুলা। প্রধানমন্ত্রী মোদির এই সিদ্ধান্তে রীতিমতো উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন তিনি। এর ফলে, দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য ও প্রযুক্তি হস্তান্তরের পথ আরও সুগম হবে। বলে রাখা ভাল, এই মুহূর্তে শুধুমাত্র আমেরিকার সঙ্গেই এহেন কাউন্সিল রয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের।

এদিন প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে বৈঠকে ভারতকে ‘টেকনোলজিক্যাল পাওয়ার হাউস’ বলে উল্লেখ করেন উরসুলা ভনডের লিয়েন। তারপরই অত্যন্ত লক্ষণীয়ভাবে তিনি বলেন, ‘এবছর ভারত-ইইউ সম্পর্কের ৬০তম বর্ষপূর্তি। আজকের দিনে এই সম্পর্কের গুরুত্ব আরও বেড়েছে। আমরা বর্ধিষ্ণু গণতন্ত্র এবং বৃহৎ অর্থনীতি। কিন্তু আজ আমরা একাধিক চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen − fourteen =