ভোট প্রচারে শিশুকে ব্যবহার নয়, কড়া নির্দেশ নির্বাচন কমিশনের

কথায় আছে, ভোট বড় বালাই। তাই নবতিপর বৃদ্ধ থেকে কোলের শিশু, কাউকেই প্রচারে ব্যবহার করতে পিছপা হয় না রাজনৈতিক দলগুলি। লোকসভা নির্বাচনের আগে শিশুদের নিয়ে নতুন নির্দেশিকা জারি করল নির্বাচন কমিশন। তারা জানিয়েছে, নির্বাচনের কাজে কোনও ভাবেই কোনও শিশুকে ব্যবহার করা যাবে না। এ বিষয়ে কমিশন ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি গ্রহণ করছে।
জাতীয় নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, আসন্ন লোকসভা ভোটের প্রচারে কোনওভাবেই শিশুদের ব্যবহার করতে পারবে না রাজনৈতিক দলগুলি। রাজনৈতিক দলের পোস্টার সাঁটানো, প্রচারপত্র বিলি থেকে শুরু করে স্লোগান দেওয়া, কোনও ক্ষেত্রেই শিশুদের ব্যবহার করা চলবে না। এমনকী, ভোটপ্রচার চলাকালীন রাজনৈতিক নেতারা কোনও শিশুকে কোলে বা হাতে নিয়ে ঘুরতে পারবেন না। ভোটপ্রচারের র‌্যালি বা গাড়িতে কোনও শিশুকে রাখা চলবে না।শুধু প্রচারসভা বা র‌্যালি নয়, ভোট সংক্রান্ত কবিতা, গান, স্লোগান বা বত্তৃ«তায় শিশুদের উল্লেখ রাখা যাবে না। কোনও ছবি বা ভিডিওতেও রাজনৈতিক দলের পতাকাবাহক হিসেবে কোনও শিশুকে রাখা চলবে না। তবে কোনও প্রচারসভা, পদযাত্রার কাছাকাছি কোনও শিশু বাবা-মায়ের সঙ্গে থাকলে, এই নিয়ম কার্যকর হবে না।
কমিশনের নির্দেশিকায় আরও বলা হয়েছে, কোনও নির্বাচনী প্রচারে শিশুদের কোলে নিয়ে বা কোনও গাড়িতে শিশুদের নিয়ে যাওয়া যাবে না। প্রচারে ব্যবহৃত কোনও কবিতা, গান, বত্তৃ«তায় শিশুদের উল্লেখ রাখা যাবে না। তবে কোনও রাজনৈতিক নেতার সভায় যদি বাবা, মায়ের সঙ্গে শিশুও উপস্থিত থাকে, তা নির্বাচনী প্রচার হিসাবে গণ্য করা হবে না। সে ক্ষেত্রে তাতে কোনও বাধাও থাকবে ন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *