ক্রেতা সেজে সোনার গয়না নিয়ে পালানোর অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদন, শ্রীরামপুর: শ্রীরামপুরে ক্রেতা সেজে দোকানে ঢুকে সোনার অলঙ্কার নিয়ে পালানোর অভিযোগ। এই ঘটনায় শ্রীরামপুর থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। সিসিটিভির ফুটেজ খতিয়ে দেখে তদন্ত করছে পুলিশ।
সোমবার শ্রীরামপুর মল্লিক পাড়ার একটি সোনার দোকানে ক্রেতা সেজে এক ব্যক্তি আসেন। দোকানির দাবি, সোনার কানের দুল আর লকেট দেখতে চেয়েছিলেন। খুব বড় দোকান নয়। দোকানি সামনেই দাঁড়িয়ে গয়না দেখাচ্ছিলেন। অভিযোগ, দোকানি একটু অন্য দিকে মন দিতেই তিন জোড়া দুল, লকেট সরিয়ে নেন ওই ব্যক্তি। এরপর দোকান থেকে বেরিয়েও যান। ওই দোকানি লক্ষ্মীকান্ত সাঁতরার দাবি, ‘কাস্টমারকে জিনিস দেখাচ্ছি। একটা করে গয়না দেখিয়ে নীচে নামিয়ে রাখছিলাম। এক জোড়া রিং দেখানোর পর ওজন করতে বলল। এই ওজন করতে ব্যস্ত, সেই সময়ই আসল গয়না তুলে নিয়েছে।’
এরপরই পুলিশের কাছে ছোটেন তিনি। সিঙ্গুরের বাসিন্দা লক্ষ্মীকান্তবাবু জানান, ৩৬ বছর ধরে শ্রীরামপুরে তিনি সোনার দোকান চালান। এমন ঘটনা কোনও দিনও ঘটেনি। এই ঘটনায় চিন্তিত এলাকার অন্যান্য স্বর্ণ ব্যবসায়ীরাও। ফের শ্রীরামপুরে সোনার দোকানে চুরি। স্থানীয় তারাপুর ব্যবসায়ী কমিটির সম্পাদক বলেন, ‘ক্রেতা সেজে এসেছিলেন। দোকানি বুঝতে পারেননি। একটা জিনিস রেখে আর একটা জিনিস নিয়ে চলে গিয়েছে। পরে দেখেন আসল গয়না উধাও। ততক্ষণে দু’জন হাওয়া।’ দোকানি জানিয়েছেন, ১৬ গ্রামের গয়না গিয়েছে। এখনকার বাজারদরে তা ১ লক্ষ ১০-১৫ হাজার টাকা তো হবেই। ভরদুপুরে এরকম ঘটনা এর আগে কখনও হয়নি বলে জানান তিনিও। পুলিশ তদন্ত করছে। এলাকার সিসিটিভিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *