কলকাতা হাইকোর্ট চত্বরে তীব্র উত্তেজনা

কলকাতা : স্কুল সার্ভিস কমিশন মামলার প্রেক্ষিতে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারক অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে বয়কটের দাবিতে আইনজীবীদের একাংশের বিক্ষোভ কে কেন্দ্র করে আজ আদালত চত্বরে তীব্র উত্তেজনা তৈরি হয়। হাইকোর্টের ১৭ নম্বর এজলাসের সামনে বিক্ষোভ দেখান তৃণমূল কংগ্রেসে আইনজীবী সেলের একাংশ। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে হাতাহাতি বেঁধে যায় দু দল আইনজীবীর মধ্যে। জানা গিয়েছে আজ সকাল থেকে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসের বাইরে জটলা করে দাঁড়িয়েছিলেন একদল আইনজীবী। সেই সময় এজলাসে ঢোকার চেষ্টা করেন বর্ষীয়ান আইনজীবী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য, বার অ্যাসোসিয়েশনের সহ সভাপতি, আইনজীবী কল্লোল মণ্ডল, অ্যাসিস্ট্যান্ট সলিসিটর জেনারেল বিল্বদল ভট্টাচার্য-সহ কয়েকজন আইনজীবী। অভিযোগ, তাঁদের বাধা দেন বিক্ষোভকারী আইনজীবীরা।

যদিও,বিক্ষোভকারীদের পাল্টা দাবি, ওই আইনজীবীরা এজলাসে ঢোকার সময়, তাঁদের ধাক্কা দেন। সেই নিয়ে ১৭ নম্বর এজলাসের বাইরে তুমুল হই-হট্টগোল শুরু হয়। বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় এজলাসে আসার পরও গন্ডগোল থামেনি। শেষে বিচারপতি বলেন, মামলার সঙ্গে যুক্ত নন এমন সকলকে এজলাস ছেড়ে বেরিয়ে যেতে বলেন। তাতে বিক্ষোভকারী আইনজীবীরা এজলাস ছেড়ে বেরিয়ে দরজার বাইরে দাঁড়িয়ে থাকেন।

অভিযোগ, বার অ্যাসোসিয়েশনের সহ সভাপতি কল্লোল মণ্ডল-সহ কয়েকজন আইজীবী যখন এজলাস ছেড়ে বেরোচ্ছেন, অবস্থানরত আইজীবীদের একাংশ তাঁদের মারতে তেড়ে যান। কল্লোল মণ্ডল-সহ বাকিরা দৌড়ে প্রধান বিচারপতির এজলাসে গিয়ে আশ্রয় নেন। তাঁকে গোটা পরিস্থিতির কথা জানান। সঙ্গে সঙ্গে প্রধান বিচারপতি এজলাস ছেড়ে বেরিয়ে যান। তার পর নিজের চেম্বারে ডেকে পাঠান বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অরুণাভ ঘোষ, অ্যাডভোকেট জেনারেল সৌমেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়, প্রাক্তন অ্যাডভোকেট জেনারেল অনিন্দ্য মিত্র-সহ আইনজীবীদের। সেখানে দীর্ঘক্ষণ আলোচনা হলেও কোনও সমাধানসূত্র মেলেনি। ঘটনায় বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

10 − 3 =