ঝড়-বৃষ্টিতে সাময়িক স্বস্তি, সম্ভাবনা ওড়ানো যাচ্ছে না ঘূর্ণিঝড়ের

কলকাতা:বৈশাখী ঝড়, বৃষ্টি এনে দিল সাময়িক স্বস্তি। মাত্রাতিরিক্ত গরমের দাপট থেকে কিছুটা স্বস্তি পেল কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলা। শুক্রবারের ঝড় ও ছিটেফোঁটার বৃষ্টির দৌলতে একটু কমেছে গরম।শনিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৬.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকতে পারে ৩৬.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রের খবর, বঙ্গোপসাগর থেকে জলীয় বাষ্প ঢুকতে শুরু করায় বৃষ্টির অনুকূল পরিস্থিতি তৈরি হচ্ছে। মে মাসের প্রথম থেকে গরম কমার সম্ভাবনা রয়েছে। বৃষ্টি হলেই ধীরে ধীরে কমবে তাপমাত্রার পারদ।

রবিবারও দক্ষিণবঙ্গের বেশিরভাগ জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এরপর সোমবার থেকে কলকাতা-সহ গোটা দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে।

দক্ষিণবঙ্গবাসীদের স্বস্তি দিয়ে নদিয়া, উত্তর ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, বর্ধমান-সহ বেশ কিছু জেলায় বৃষ্টি হয় শুক্রবার। সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়াও বয়ে যায় এই জেলাগুলোর ওপর দিয়ে। আগামী ২ মে থেকে দক্ষিণবঙ্গের সমস্ত জায়গাতেই বিক্ষিপ্তভাবে ঝড়-বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে এবং ৩ মে থেকে আরও বাড়বে এই ঝড়-বৃষ্টি। কলকাতাতেও বিক্ষিপ্ত ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

তবে এর পাশাপাশি রয়েছে নিম্নচাপের ভ্রূকুটিও। গভীর নিম্নচাপের ইঙ্গিত দিয়েছে মৌসম ভবন। আন্দামান সাগরের ওপর নিম্নচাপ ঘনীভূত হওয়ার সম্ভাবনা। আবহাওয়াবিদদের অনুমান, ৪ মে আন্দামান সাগরে ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হতে পারে। যা শক্তি বাড়িয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তা শক্তি বাড়িয়ে ঘূণিঝড়ে পরিণত হতেই পারে। সে সম্ভাবনা রয়েছে। তবে এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়ার জন্য আরও সময় দরকার বলেই জানাচ্ছেন তাঁরা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen − 13 =