অর্শদীপ ও আবেশের বলেই লজ্জার হার দক্ষিণ আফ্রিকার

অর্শদীপ সিং এবং আবেশ খানের স্পেলেই ঘরের মাঠে কুপোকাত মার্করামরা। মাত্র ১১৬ রানেই গুটিয়ে গেল হোম ফেভারিটরা। রবিবার জোহানেসবার্গে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন মার্করাম। কিন্তু প্রোটিয়াদের স্ট্র্যাটেজিতে শুরুতেই জোর আঘাত হানেন দুই ভারতীয় বোলার। নিজের প্রথম ওভার থেকেই উইকেট পেতে শুরু করেন অর্শদীপ। রিজা, ভ্যান ডার ডুসেন ফেরেন শূন্য রানে। আরেক ওপেনার টনি জর্জি ২৮ রানে আউট হন। ক্লাসেন, মার্করাম থেকে ডেভিড মিলার, দুই ভারতীয় বোলারের ঝোড়ো বোলিংয়ের সামনে কেউই টিকতে পারেন না।

টি-টোয়েন্টি নাকি ওয়ানডে ম্যাচ হচ্ছে? যেভাবে একের পর এক ব্যাটার প্যাভিলিয়নে ফিরলেন, তা দেখে বোঝাই দায়। অর্শদীপ ৩৭ রান দিয়ে তুলে নেন পাঁচটি উইকেট। প্রথমবার ওয়ানডে-তে এক ম্যাচে পাঁচ উইকেট নেওয়ার রেকর্ড গড়লেন তিনি। এদিকে আবেশ ২৭ রান দিয়ে পেলেন চারটি উইকেট। দলের হয়ে সবচেয়ে বেশি রান ফেলুকয়ায়োর। ৩৩ রানে আউট হন তিনি।

নিজেদের ঘরের মাঠে এটাই দক্ষিণ আফ্রিকার সর্বনিম্ন স্কোর। এর আগে ২০১৮ সালে ভারতের বিরুদ্ধেই সেঞ্চুরিয়নে ১১৮ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল প্রোটিয়াবাহিনী। এবার আরও কম রান করে লজ্জার রেকর্ড গড়ল তারা। উল্লেখ্য, এবারের বিশ্বকাপে ভালো ছন্দেই ধরা দিয়েছিলেন মার্করামরা। সেই দক্ষিণ আফ্রিকাকেই ঘরের মাঠে যেভাবে নাস্তানাবুদ করলেন কে এল রাহুলরা, তা নিঃসন্দেহে ভারতীয় শিবিরের কাছে স্বস্তির। এমনিতেই বিরাট-রোহিত-বুমরাহ-শামিদের মতো সিনিয়ররা এই সিরিজে খেলছেন না। তাঁদের অনুপস্থিতিতে অন্য ভারতীয় দলও যে তৈরি, এই পারফরম্যান্স যেন তারই প্রমাণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *