‘সন্দেশখালি সঙ্গে আছি’ গেঞ্জি পরে বিধানসভায় বিজেপি বিধায়করা স্লোগানে উত্তেজনা বিধানসভায়

সন্দেশখখালি কাণ্ড নিয়ে প্রতিবাদ জানাতে ‘সন্দেশখালি সঙ্গে আছি’ গেঞ্জি পরে বিধানসভা অধিবেশন কক্ষে প্রবেশ করলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী-সহ অন্যান্য বিজেপি বিধায়করা। অধিবেশনের শুরুতে স্লোগানে তপ্ত হল বিধানসভা কক্ষ। পাল্টা স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় গেঞ্জি খোলার অনুরোধ করেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে। শুভেন্দু অধিকারীকে বলেন, “আপনারা যে গেঞ্জি পরে এসেছেন এটা বিধানসভায় চলে না। আপনারা গেঞ্জি খুলুন।” পাল্টা আবার শুভেন্দু জানান, “আমরা তো কোনও অন্যায় কথা লিখিনি। আমরা বলেছি সন্দেশখালি সঙ্গে আছি।” যদিও, বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, এটা একটা স্লোগান। স্লোগান লিখে বিধানসভায় আসা যায় না।

সোমবার বিধানসভার অধিবেশনের শুরুতেই সন্দেশখালি ইস্যু নিয়ে সরব হন বিজেপি বিধায়করা। বিধানসভার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী সন্দেশখালিকাণ্ডে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিবৃতি দাবি করেন। তিনি বলেন, “বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রীর আসার তারিখ থাকে সোমবার। কিন্তু উনি উপস্থিত থাকেন না। ফলে স্বরাষ্ট্র দপ্তরের কোনও প্রশ্ন উত্তর এখানে হয় না। বিরোধীরা বঞ্চিত হয়। কেন মুখ্যমন্ত্রী উত্তর দিতে আসেন না ?” স্পিকারের কাছে প্রশ্ন করেন বিরোধী দলনেতা।

এরপর রাজ্য বাজেট নিয়েও ক্ষোভ উগরে দেন তিনি। বলেন, “বাজেট দেখলাম। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক নিয়ে আলোচনার সুযোগ নেই। কেন দিনের পর দিন এটা চলবে?” জবাবে স্পিকার বলেন, ‘আপনারা কোনও বিজনেস অ্যাডভাইসারি বা কার্য উপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে উপস্থিত থাকেন না। সেখানে বললে অবশ্যই আমি বিবেচনা করে দেখতাম। কিন্তু এখন আর কিছু করার নেই।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *