ডেজার্টে বানিয়ে ফেলুন ডাবের পুডিং

গরমে ঠান্ডা ঠান্ডা সুন্দর খাবার খেতে কার না মন চায়! আর সেটা যদি খেতে ও দেখতে দুটোই সুন্দর হয় তাহলে ব্যপারটাই জমে যায়।ডাবের জল গরমে শরীর ঠান্ডা রাখে। তাছাড়া এতে থাকা নানা ধরনের খনিজ পুষ্টি জোগায়।এই ডাবের জল দিয়েই বানিয়ে ফেলুন পুডিং। রইল দুধরনের রেসপি

উপকরণ-মোটা শাঁসযুক্ত ডাব, জিলাটিন পাওডার, অথবা আগর আগর বা চায়না গ্রাস, চিনি, দুধ, কনডেনসড মিল্ক।

বানানোর পদ্ধতি- প্রথমে ডাবের শাঁসটা ইচ্ছেমতো আকারে কেটে নিন। গোল বা ফুলের মতো, লম্বা করে, যেমন ইচ্ছে। এবার একটি পাত্রে ডাবের জল নিয়ে তার সঙ্গে স্বাদমতো চিনি মিশিয়ে ভাল করে ফুটিয়ে নিন। আর একটি পাত্রে পরিমাণ মতো জিলেটিন দিয়ে জল দিয়ে ভিজিয়ে নিন যতক্ষণ না ফুলে উঠছে। আগর আগর দিয়ে করলে সেটা গরম জলে ভাল করে ফুটিয়ে নিন যতক্ষণ না মিশ্রনটা ঠিকমতো হচ্ছে। এবার জিলাটিন বা অথবা আগর আগর পাওডারের মিশ্রনটা চিনি দেওয়া ডাবের জলের সঙ্গে হাল্কা আঁচে ভাল করে মিশিয়ে ফুটিয়ে নিন। মিশ্রনটা ঠান্ডা হলে পুডিং-এর ছাঁচে অথবা যেখানে বসাবেন সেই কাচ বা প্লাস্টিকের স্বচ্ছপাত্রে কেটে রাখা ডাবের শাঁসটা দিন। তারপর ডাবের জলের মিশ্রনটা ঢেলে ফ্রিজে কয়েক ঘণ্টা ঠান্ডা হতে দিন। দেখবেন স্বচ্ছ একটা পুডিং তৈরি হয়েছে। ভেতর থেকে ডাবের শাঁসের অংশ দেখা যাচ্ছে।

স্বাদ আরও বাড়াতে এই পর্যায়ে নারকেলের শাঁসের পেস্ট, ঘন দুধ ও কনডেনসড মিল্ক ভাল করে জ্বাল দিয়ে ঠান্ডা করে নিন। পুডিং যে পাত্রে পরিবেশন করবেন, সেখানে টুকরো টুকরো করে পুডিংটা কেটে রাখুন। ওপর থেকে দুধের মিশ্রনটা ছড়িয়ে দিন। ওপর থেকে বাদাম কুঁচিও ছড়িয়ে দিতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × 2 =