ভারতীয় নৌসেনার জন্য রক্ষা ব্রিটিশ বাণিজ্যতরীর

ব্রিটেন, ২৮ জানুয়ারি: ভারতীয় নৌসেনার জন্য এ যাত্রায় রক্ষা পেল ব্রিটিশ বাণিজ্যতরী। মাঝ সমুদ্রে টানা ছ’ঘণ্টা আগুনের সঙ্গে লড়ে যান নৌসেনার ১০ কর্মী। এই লড়াইয়ের পর অবশেষে নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয় জাহাজের আগুন। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় হতাহতের কোনও খবর নেই। ২২ ভারতীয়, ১ বাংলাদেশি-সহ জাহাজের সমস্ত যাত্রীর প্রাণ বাঁচানোর জন্য ভারতীয় নৌসেনাকে ধন্যবাদ জানাতে ভোলেননি ব্রিটিশ পণ্যবাহী জাহাজের ক্যাপ্টেন।
এডেন উপসাগরে ব্রিটিশ বাণিজ্যতরীতে হাউথিরা মিসাইল হামলা চালালে দাউদাউ করে জ্বলে ওঠে জাহাজটি। জাহাজের মধ্যে থাকা যাত্রীদের পুড়েমরার পরিস্থিতি তৈরি হয়। এডেন উপসাগরেই ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংসকারী আইএনএস বিশাখাপত্তনম মোতায়েন ছিল। প্রাণ বাঁচাতে ভারতীয় যুদ্ধ জাহাজের কাছে সাহায্য চান ব্রিটিশ জাহাজের ক্যাপ্টেন। এরপরই আগুন নেভানোর জন্য ঝাঁপিয়ে পড়ে ভারতীয় নৌসেনার বিশেষ দল। মাঝ সমুদ্রে জাহাজের আগুন নেভানোর জন্য ৬ ঘণ্টা লড়াই চালাতে হয় ১০ জওয়ানকে। তাঁদের চেষ্টাতেই শেষ পর্যন্ত রক্ষা পান জাহাজের যাত্রীরা।
বাণিজ্যতরীর ক্যাপ্টেন অভিলাস রাওয়াত ভারতীয় নৌসেনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে এক্স হ্যান্ডেলে লিখেছেন, ‘প্রাণে বাঁচার সমস্ত আশা যখন ছেড়েই দিয়েছিলাম, তখনই আমাদের বাঁচাতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয় ভারতীয় নৌসেনার আইএনএস বিশাখাপত্তনম। নৌসেনার অগ্নিনির্বাপণ বিশেষজ্ঞদের কুর্নিশ। ওঁদের জন্যই প্রাণ বাঁচল। ভারতীয় নৌসেনাকে ধন্যবাদ।’ ভারতীয় নৌসেনার তরফে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, ৬ ঘণ্টার লড়াই শেষে ওই বাণিজ্যতরীর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়। বিপদ এড়াতে জাহাজটিকে কড়া নজরে রাখা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

13 − three =