মহারাষ্ট্র, কর্নাটকের ৪০ জায়গায় এনআইএ তল্লাশি,  ধৃত ১৩

আইএস জঙ্গিগোষ্ঠীর সঙ্গে জড়িত সন্দেহে মহারাষ্ট্র এবং কর্নাটকের ৪০ জায়গায় তল্লাশি অভিযান চালিয়ে ১৩ জনকে গ্রেপ্তার করল জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা (এনআইএ)। শনিবার সকালে দুই রাজ্যে এই তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে এনআইএ।

মহারাষ্ট্রের থানে, পুণে, মীরা ভায়ান্দরে তল্লাশি অভিযান চালানো হচ্ছে বলে এনআইএ সূত্রে খবর। এনআইএ আরও জানিয়েছে যে, থানে গ্রামীণ এবং শহরের বহু জায়গায় তল্লাশি চলছে। কর্নাটকের এক জায়গায়, পুণের দু’জায়গায়, থানে গ্রামীণের ৩১ জায়গায়, থানে শহরে ৯ জায়গায় এবং ভায়ান্দরের এক জায়গায় তল্লাশি চালিয়ে ১৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে এনআইএ সূত্রে খবর।

এনআইএ সূত্রে খবর, তদন্তকারীরা জঙ্গিদের বৃহত্তর ষড়যন্ত্রের ছক বানচাল করে দেন। বিদেশের মাটিতেই তৈরি হয়েছিল ভারতে সন্ত্রাস কার্যকলাপ চালানোর পরিকল্পনা। এর সঙ্গে যোগ রয়েছে আইএসআইএসের। এই তদন্তে ইসলামিক স্টেটের চরমপন্থি আদর্শ ভারতে ছড়ানোর পরিকল্পনাও ভেস্তে দেওয়া হয়েছে। জানা গিয়েছে, কয়েকজন মিলে একটি নেটওয়ার্কের জাল তৈরি করে এই কাজ করত।

আইএস কার্যকলাপের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে গত অগস্টে আকিফ আতিক নাচান নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছিল এনআইএ। পরে আরও পাঁচ জনকে গ্রেপ্তার করা হয় নভেম্বরে। মূলত, ইসলামিক স্টেট সমর্থকদের ডেরাতেই এই তল্লাশি অভিযান হয়। সূত্রের খবর ছিল, ভারতে হামলা চালানোর ছক কষছে ইসলামিক স্টেট। মুম্বইয়ের মতো একাধিক শহরে সক্রিয় হয়েছে জিহাদিদের স্লিপার সেলগুলো। চলতি বছরের শুরুতে এনিয়ে একটি মামলাও করে এনআইএ। সেই মামলার পরবর্তী পদক্ষেপ হিসাবে এদিনও অভিযান শুরু করে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven − 2 =