মমতার বাড়িতে ‘পাহাড়ি বৌমা’, কার্শিয়াংয়ের মেয়ের সঙ্গে বিয়ে হচ্ছে ভাইপো আবেশের

উত্তরবঙ্গ, পাহাড় বড় প্রিয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। পাহাড়ের মানুষের সারল্যও তাঁর বড় ভালোলাগার। এবার মুখ্যমন্ত্রীর ঘরেই আসতে চলেছে ‘পাহাডি বৌমা’।
৭ ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার ভাইপো আবেশ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কার্শিয়াঙের এক তরুণীর বিয়ে। আর সেই বিয়ের বরকর্তা কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম (ববি)। সোমবার বিধানসভায় দাঁড়িয়ে এ কথা জানালেন মমতা। উত্তরবঙ্গ সফরে গত মার্চে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, পাহাড়ের মেয়েকে বাড়ির বৌমা করে নিয়ে যাবেন। সেটাই এ বার বাস্তবে পরিণত হতে চলেছে।
মমতার ভাই কার্তিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছেলে আবেশ। তিনি পেশায় চিকিৎসক। আগামী বৃহস্পতিবার তাঁর বিয়ে। সোমবার বিধানসভায় মমতা ওই বিয়ে প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমার পরিবার নেই। তা-ও বলছি, আমার চিকিৎসক ভাইপোর বিয়ে। কার্শিয়াঙের পাহাড়ি মেয়ের সঙ্গে। সেই বিয়ের বরকর্তা ফিরহাদ হাকিম।’ এর পরেই মমতা জানান, কেন ফিরহাদ ওই বিয়ের বরকর্তা। তাঁর কথায়, ‘আমার ভাইপোর ভিক্ষা মা ওঁর (ফিরহাদ) স্ত্রী।’
নবান্ন সূত্রের খবর, কার্শিয়াঙে গিয়ে বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন মুখ্যমন্ত্রী। উত্তরবঙ্গের প্রশাসন সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার খুড়তুতো ভাইয়ের বিয়েতে যোগ দেবেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার দুপুরেই তিনি রওনা হন উত্তরবঙ্গের উদ্দেশে। বিমান ধরে বাগডোগরা বিমানবন্দরে পৌঁছে সড়কপথে যান কার্শিয়াং।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *