পুরীতে গিয়ে রহস্যমৃত্যু বাগুইআটির যুবকের, কলকাতায় তদন্তে ওড়িশা পুলিশ

কলকাতা:বন্ধুদের সঙ্গে পুরী ঘুরতে গিয়ে রহস্যমৃত্যু যুবকের। জানা গিয়েছে, হোটেলের ব্যালকনি থেকে পড়ে মৃত্যু হয়েছে যুবকের। মৃতের নাম চয়ন সরকার। তিনি বাগুইআটির বাসিন্দা। এদিকে তাঁর মৃত্যুর পরই বাকি বন্ধুরা কলকাতা ফিরে আসায় পরিবারের সন্দেহ এর পিছনে তাঁদের হাত থাকতে পারে।ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুরীর পুলিশ।

জানা গিয়েছে, চয়ন ও তাঁর কয়েকজন বন্ধু দিনকয়েক আগে পুরী ঘুরতে যাওয়ার পরিকল্পনা করেন। গাড়িও ভাড়া করেছিলেন। ৬ এপ্রিল পুরী পৌঁছয় দলটি। ৭ এপ্রিল হোটেলের ছাদ থেকে পড়ে মৃত্যু হয় চয়নের। বাড়িতে খবর পৌঁছন মাত্র চয়নের বাবা পুরী পৌঁছে যান। এদিকে খবর পেয়ে ওড়িশা সি বিচ থানার পুলিশ চয়নকে উদ্ধার করে নিয়ে যায় হাসপাতালে। সেখানেই চিকিৎসকরা চয়নকে মৃত বলে ঘোষণা করে।

পুরী পৌঁছে ওড়িশার সি বিচ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। তাঁর অভিযোগ, বন্ধুরাই ব্যলকনি থেকে ফেলে মেরে ফেলেছে ছেলেকে। চয়নের বন্ধুরা তাঁর মৃত্যুর পরই কলকাতায় ফিরে আসে। এই ঘটনাই মৃতের বাবার সন্দেহ আরও দৃঢ় করেছে। এদিকে অভিযোগ পাওয়া মাত্রই তদন্ত শুরু করে পুরীর সি বিচ থানায তদন্তের স্বার্থে শনিবার কলকাতায় আসেন ওড়িশার তদন্তকারীরা।

ইতিমধ্যেই পুলিশ আধিকারিকরা গাড়িটির সন্ধান পেয়েছেন, যেটিতে মৃত যুবক ও তার বন্ধুরা পুরী গিয়েছিলেন। সেটির চালক অরিজিৎ নন্দীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। খোঁজ চলছে চয়নের বন্ধুদের। কেন তারা পালিয়ে এল? ঠিক কী হয়েছিল হোটেলে? কীভাবে মৃত্যু হল চয়নের, তা জানার চেষ্টা করছে তদন্তকারীরা।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

11 − three =