সিপিএমকে ঠ্যাঙানো, তৃণমূলকে সাইজ করে কেটে খাওয়ার হুঁশিয়ারি বিধায়কের

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাঁকুড়া: প্রকাশ্য সভামঞ্চ থেকে একই সঙ্গে তৃণমূল ও সিপিএমের বিরুদ্ধে কড়া নিদান দিয়ে ফের বিতর্কে জড়ালেন বাঁকুড়ার ওন্দার বিধায়ক তথা বিজেপির বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা সভাপতি অমরনাথ শাখা। সিপিএমকে ছাগলের চতুর্থ বাচ্চা হিসাবে উল্লেখ করে তাঁর নিদান, এদের আগে ঠ্যাঙাতে হবে। তৃণমূলের বিরুদ্ধে তাঁর নিদান, ২৪ এর ভোটের পর এদের নিজের মুরগি মনে করে সাইজ করে আপনারা খাবেন। বিজেপি বিধায়কের এমন নিদানে বিতর্কের ঝড় উঠেছে রাজনৈতিক মহলে। এই মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছে তৃণমূল ও সিপিএম।
প্রকাশ্য সভামঞ্চ থেকে একাধিকবার বিতর্কিত মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়েছেন ওন্দার বিজেপি বিধায়ক তথা বিষ্ণুপুরের বিজেপি জেলা সভাপতি অমরনাথ শাখা। ফের একবার প্রকাশ্য সভামঞ্চ থেকে দলীয় কর্মীদের নিদান দিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি করলেন তিনি। শনিবার সন্ধ্যায় বাঁকুড়ার রতনপুরে দলীয় সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়কে মঞ্চে বসিয়ে অমরনাথ শাখা বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন, ‘ভারতের রাজনীতিতে সিপিএম ছাগলের চতুর্থ সন্তান। এরা দেশদ্রোহী। ঠ্যাঙাতে হলে এদের আগে ঠ্যাঙাতে হবে।’ এরপরই তৃণমূলের কথা বলতে গিয়ে বিধায়ক বলেন, ‘তৃণমূলের নেতারা ছাগলের তৃতীয় সন্তান। যে ভাবে আপনারা পঞ্চায়েতে ভোট হতে দেননি এবং পঞ্চায়েতের বিরোধী সদস্যদের যোগ্য সম্মান দেননি তাতে ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচনের পর আপনারা কে কোথায় থাকেন সেটাই চিন্তার।’ এরপরই সভায় উপস্থিত দলীয় কর্মীদের উদ্দেশে বিধায়কের নিদান, ‘২৪ এর নির্বাচনের পর আপনারা নিজের নিজের মুরগির মতো সাইজ করে খেতে শুরু করবেন। কাউকে রেয়াত করবেন না।’
সভা শেষে নিজের বক্তব্যের পক্ষে অমরনাথ শাখার দাবি, ‘একসময় সিপিএমকে আশ্রয় দিয়েছিল বিজেপি। কিন্তু পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিজেপির ভোট কেটে সিপিএম তৃণমূলের সুবিধা করে দিচ্ছে। এখন সিপিএম তৃণমূলের পয়সায় চলে। অন্যদিকে তৃণমূল নেতারা যে ভাবে বিজেপি কর্মীদের বিনা অপরাধে মারধর করছেন, মিথ্যা মামলা দিচ্ছেন, তাতে ২০২৪ সালের পর আমাদের দলের কর্মীরা তাঁদের গালে চুমু খাবে না। নিজের মুরগির গলা কেটে বা পা কেটে যেমন ভাবে সবাই মুরগি খান তেমন খাবেন।’
বিধায়কের এই বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছে সিপিএম ও তৃণমূল। সিপিএমের দাবি, এই ধরনের কুরুচিকর মন্তব্য বিজেপি ও তৃণমূল নেতারাই করতে পারেন। মানুষের রুজিরুটির প্রশ্ন ভুলিয়ে যে ভাবে ধর্মের নামে বিভাজন তৈরি করা হচ্ছে, তাতে আগামী দিনে মানুষ তাঁদের প্রতি এমন আচরণ করে কিনা তা দেখার। তৃণমূলের দাবি, এই ধরনের বক্তব্য খুব নিম্নমানের। এই বক্তব্য বিধায়কের মুখে শোভা পায় না। সিপিএমের ভোটে ২০২১ সালে জয়ী হয়েছিলেন বিজেপির অমরনাথ শাখা। এখন তাঁর আশঙ্কা, সিপিএম ভোট না দিলে বিজেপি হেরে যাবে। সেই আশঙ্কাতেই এমন কথা বলছেন বিধায়ক অমরনাথ শাখা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *