মহিলা তৃণমূলের সংঘবদ্ধ শপথে বন্ধ স্কুল, বিতর্ক

নিজস্ব প্রতিবেদন, বাঁকুড়া: স্কুলে বাৎসরিক পরীক্ষা হয়ে যাওয়ায় ক্লাস বন্ধ রয়েছে। কিন্তু চলছিল ভর্তি ও সরকারি বই দেওয়ার প্রক্রিয়া। কিন্তু স্কুলে আয়োজিত হয়েছে মহিলা তৃণমূলের সংঘবদ্ধ শপথ অনুষ্ঠান। দাবি, স্কুল বন্ধ থাকল। স্কুল এসেও ফিরে গেল কিছু পড়ুয়া। স্কুলমুখো হতে দেখা গেল না শিক্ষকদেরও। বাঁকুড়া শহরের একেবারে কেন্দ্রস্থলে থাকা বঙ্গ বিদ্যালয়ের এমন ঘটনায় শুরু হয়েছে জোর বিতর্ক।
বাঁকুড়া শহরের একেবারে কেন্দ্রস্থলে রয়েছে বঙ্গ বিদ্যালয়। বারেবারেই এই বিদ্যালয় জড়িয়েছে বিতর্কে। এবার স্কুল বন্ধ রেখে শাসকদলের অনুষ্ঠান করা নিয়ে বিতর্কে জড়াল এই স্কুল। জানা গিয়েছে, এদিন বঙ্গ বিদ্যালয়ে মহিলা তৃণমূলের উদ্যোগে আয়োজিত হয় সংঘবদ্ধ শপথ নামের একটি কর্মসূচি। এই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অসংখ্য মহিলা এই কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছিলেন। স্কুলের সভাঘরে আয়োজিত মহিলা তৃণমূলের এই কর্মসূচির জন্য স্কুল বন্ধ রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
এদিন স্কুলে ভর্তি ও নতুন বই নিতে এসেও বেশ কয়েকজন পড়ুয়াকে ফিরে যেতে হয় বলে অভিযোগ। স্কুলের কোনও শিক্ষক-শিক্ষিকা এমনকি প্রধান শিক্ষকও স্কুলের ধারপাশ দিয়ে যাননি বলে দাবি। কী কারণে স্কুল এভাবে বন্ধ রাখা হয়েছে সে সম্পর্কে কিছু জানাতে পারেননি স্কুলে আসা নিরাপত্তারক্ষীরাও। যেখানে জেলার সমস্ত স্কুল এদিন খোলা ছিল সেখানে কেন বন্ধ বঙ্গ বিদ্যালয় তা নিয়ে কিছু জানাতে পারেনি শিক্ষা দপ্তরও। জেলা স্কুল পরিদর্শক স্কুল বন্ধের ব্যাপারে খোঁজ নিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন।
মহিলা তৃণমূলের কর্মসূচির জন্যই বিনা নোটিশে বঙ্গ বিদ্যালয় স্কুল বন্ধ রাখার অভিযোগ এনে ঘটনার কড়া নিন্দা করেছে বিজেপি। তৃণমূলের দাবি স্কুল বন্ধ রয়েছে। তাই স্কুল কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়েই এই কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। একই দাবি করেছেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *