পেপারমিল খোলার দাবিতে জাতীয় সড়ক অবরোধ বামেদের

নিজস্ব প্রতিবেদন, আসানসোল: ভোট ঘোষণার কয়েক ঘণ্টা আগে কারখানা খোলার দাবিতে শনিবার জাতীয় সড়ক অবরোধ করলেন বামেরা। অবরোধ তুলতে গিয়ে পুলিশের সঙ্গে ব্যাপক বচসা বধে বামনেতা কর্মীদের। প্রাক্তন সাংসদ বংশগোপাল চৌধুরীর সঙ্গে তুমুল বাকবিতন্ডা বাঁধে রানিগঞ্জ পুলিশের।
বামেদের দাবি, রানিগঞ্জ বল্লভপুর পেপার মিল কারখানার সাসপেনশন অফ ওয়ার্কের নোটিশ এখনও প্রত্যাহার হয়নি। শ্রমিকরা বকেয়া বেতন পাননি। এবার সিপিএমের প্রাক্তন সাংসদ তথা সিটু নেতা বংশগোপাল চৌধুরীর নেতৃত্বে জাতীয় সড়ক অবরোধ করলেন বামেরা। রানিগঞ্জের পাঞ্জাবি মোড় ১৯ নম্বর জাতীয় সড়ক এবং ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কের সংযোগে এই অবরোধ হয়। এর ফলে আসানসোল থেকে দুর্গাপুর যাওয়ার রাস্তা যেমন অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে, একই ভাবে বাঁকুড়া থেকে রানিগঞ্জ হয়ে বীরভূম যাওয়ার রাস্তাও অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। ব্যাপক যানজট সৃষ্টি হয়।
উল্লেখ্য, রানিগঞ্জ বেঙ্গল পেপার মিলে সাসপেনশন অফ ওয়ার্কের নোটিশ ঝোলানো হয় ৩০ জানুয়ারি। তার আগে বিনা নোটিশে ৭ জানুয়ারি থেকে কারখানার উৎপাদন বন্ধ করে দেওয়া হয়। ফলে অনিশ্চিত হয়ে পড়ে ৩৫০ জন শ্রমিকের রুজি রোজগার। আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রে সিপিএম প্রার্থী ঘোষণার পরেই তিনি জানিয়েছিলেন, তাঁদের অন্যতম ইস্যু কলকারখানা খোলা ও স্থানীয়দের চাকরির দাবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four + seven =