পূর্ব মেদিনীপুরে মাটি মাফিয়াদের দাপট, গ্রেপ্তার তৃনমূল সহ একাধিক

মদন মাইতি, পূর্ব মেদিনীপুর : মাটি মাফিয়াদের দৌরাত্ম্য বেড়েই চলেছে পূর্ব মেদিনীপুরে। জেলা পুলিশ প্রশাসন তদন্তে নেমে তৃণমূল নেতার সহ ৩ জনকে গ্রেফতার করল পুলিশ। মাটি মাফিয়াদের দৌরাত্ম্যের কারণে সমস্যা পড়তে হচ্ছে সাধারণ বাসিন্দাদের।

জানা গিয়েছে, দুই মেদিনীপুরে কেলেঘাই নদী চর থেকে অবৈধভাবে পাচার হচ্ছিল মাটি। মাটি খননের ফলে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছিল। পাশাপাশি বন্যার প্রবণতা বেড়েই চলেছিল। শনিবার রাতভর তল্লাশি চালিয়ে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ভগবানপুর থানার পুলিশ তিন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। অভিযুক্তরা হল ভগবানপুর থানা এলাকায় পিন্টু প্রধান , রবীন্দ্রনাথ সামন্ত ও মদন কুমার ভক্তা। রবিবার অভিযুক্তদের কাঁথি মহকুমা আদালতে পাঠায় পুলিশ।

সূত্রের খবর, পূর্ব মেদিনীপুর জেলার বিস্তীর্ণ সমুদ্র উপকূলবর্তী এলাকা থেকে একের পর এক অবৈধভাবে রাতের অন্ধকারে পাচার হচ্ছিল মাটি। মাফিয়াদের ধরতে সক্রিয় হয় পুলিশ প্রশাসন। এনিয়ে মাটি মাফিয়াদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হন এলাকার বাসিন্দা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছেও অভিযোগ জানান এলাকার বাসিন্দারা। পাশাপাশি সরব হন জনপ্রতিনিধিরাও।

যেহেতু পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুরে কেলেঘাই নদীর চর থেকে অবৈধভাবে দিনের-পর-দিন পাচার হচ্ছিল মাটি। অবৈধ মাটি খননের ফলে বন্যার আশঙ্কা সমস্যা বেড়েই চলেছে। পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছিল। পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে নদীর চরে থাকা ইটভাটাতে নোটিশ দেওয়া হয়। তারপরও কিছু অসাধু ব্যবসায়ী রাতের অন্ধকারে পাচার করছিল মাটি। শনিবার রাতভর তল্লাশি চালিয়ে পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে।

অন্যদিকে, সমুদ্র উপকূলবর্তী এলাকা জুনপুট সহ বিস্তীর্ণ এলাকা মাটি মাফিয়াদের দৌরাত্ম্যে চিরুনি তল্লাশি চালালো জুনপুট উপকূল থানার পুলিশ সহ প্রশাসনের আধিকারিকরা। রাতভর তল্লাশি চালিয়ে জুনপুট উপকূল থানার পুলিশ রাতের অন্ধকারে মাটি পাচার করার অভিযোগে ৪ অভিযুক্তকে পাকড়াও করলো পুলিশ। পাশাপাশি জেসিবি ও ট্রাক বাজেয়াপ্ত করে। সমুদ্র উপকূলবর্তী বিস্তীর্ণ এলাকা তল্লাশি চালান দেশপ্রাণ ব্লকের ভিডিও শুভজিৎ জানা, ভূমি দপ্তরের আধিকারিক ও জুনপুট উপকূল থানার ওসি প্রলয় চন্দ্র সহ একাধিক পুলিশ আধিকারিকরা। সাম্প্রতিক কয়েক ধরে জুনপুট উপকূল থানার বিস্তীর্ণ এলাকায় রাতের অন্ধকারে ট্রাকে করে চুরি যাচ্ছিল মাটি। অভিযোগ পেয়ে গোপন সূত্রে অভিযান চালিয়ে পুলিশ ৪ অভিযুক্তকে পাকড়াও করে। জুনপুট উপকূল থানার পুলিশ জানিয়েছে অভিযুক্তরা হল মহিষাদল এলাকায় মফিজুল আলি খান ও জুনপুট উপকূল থানার বিচুনিয়া এলাকার শেখ ভোলা ও সাবুল খান, অন্যএক জুনপুট উপকূল থানার পশ্চিম ভগবানপুর গ্রামের বিপুল কুমার নায়ক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 1 =