সন্দেশখালি-কাণ্ডে নতুন করে ধৃত ৩, গ্রেপ্তারির সংখ্যা বেড়ে ৭

নিজস্ব প্রতিবেদন, সন্দেশখালি: সন্দেশখালিতে ইডির ওপর হামলার ঘটনায় গ্রেপ্তারের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৭। মঙ্গলবার তিন জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। নতুন করে ধৃত তিন জনকে বসিরহাট মহকুমা আদালতে তোলা হয়েছে। ধৃতদের নাম এনামুল শেখ, আইজুল শেখ, বাড়ি ন্যজাট থানার বড় আজগরা গ্রামে। বাকি হাজিনুর শেখ এর বাড়ি সন্দেশখালি থানার সরবেড়িয়া আগারহাটি গ্রাম পঞ্চায়েতের শেখ পাড়ায়।
ভিডিও ফুটেজ দেখে তিন জনকে চিহ্নিত করে পুলিশ। কিন্তু এই তিন অভিযুক্তের পরিবারের দাবি, ‘আমাদের স্বামী ও ছেলেরা ওইদিন ঘটনাস্থলে ছিল না। তাদের পরিকল্পনা করে ফাঁসানো হচ্ছে। সোমবার রাত্রিবেলা ন্যজাট থানার সরবেড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের শেখ পাড়ায় নিজের মেছোঘেরিতে রাত্রে পাহারায় ছিলেন। তারপর পুলিশ গিয়ে তাদেরকে ধরে আনে, সন্দেশখালির শেখ শাহাজান কাণ্ডে তাদেরকে ধরে আনা হয়েছে ইডির অভিযোগের ভিত্তিতে।’ ইতিমধ্যে ৩ অভিযুক্তকে আজ বসিরহাট মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক ৬ দিনের জেল হেপাজতের নির্দেশ দিয়েছে  হাজি নূর শেখের স্ত্রী মারিয়া শেখের দাবি, এই ঘটনার সঙ্গে তারা কোনওভাবেই যুক্ত না। তারা মাছের ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত, মেছোঘেরি পাহারা দিচ্ছিল সেই সময় তাকে তুলে আনা হয়েছে। আমাদের কন্যা সন্তান ও একটি ছোট বাচ্চা রয়েছে। তাই নির্দোষ স্বামীকে জামিন দেয়া হোক পাশাপাশি অন্য দুই অভিযুক্ত ন্যজাট থানার বড় আজগরা গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাদের আত্মীয় হাবিবুর শেখ বলেন আমার দাদা ভাইরা নির্দোষ। তারা এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত নন। মাছ চাষ করে আমাদের জীবিকা নির্বাহ হয়। চক্রান্ত করে ফাঁসানো হচ্ছে। এই তিনজনকে আজ বসিরহাট মহকুমা আদালত ছয় দিনের জেলা হেপাজতের  নির্দেশ দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *