যুবনেত্রীকে হুংকার, শীর্ষ নেতৃত্বকে সময় বিধায়ক মনোরঞ্জন ব্যাপারীর

নিজস্ব প্রতিবেদন, বলাগড়: গত বুধবার রাতে বলাগড়ে তৃণমূল বিধায়কের কার্যালয় ভাঙচুর করা হয় যুব নেত্রীর বিরুদ্ধে হুংকার ছাড়ার পাশাপাশি দলের শীর্ষ নেতৃত্বকে এদিন সময়সীমা বেঁধে দেন তিনি গত মঙ্গলবার ফেসবুক দলের একাংশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন মনোরঞ্জন এবং বলেন, ‘দু’দিন সময় দিলাম। না হলে, জন জাগরণ আন্দোলন শুরু হবে।’ কার্যত দলের বিরুদ্ধে ‘যুদ্ধ ঘোষণা’ বলাগড়ের তৃণমূল বিধায়ক মনোরঞ্জন ব্যাপারী।
উল্লেখ্য, ৭ জানুয়ারি বিস্ফোরক কিছু ঘোষণা করবেন বলে জানিয়েছিলেন হুগলি জেলার বলাগড়ের বিধায়ক মনোরঞ্জন ব্যাপারী। তবে কার্যালয় ভেঙে দেওয়ার কারণে ফেসবুক লাইভ করা যাচ্ছে না বলে জানান ব্যাপারী। গত বুধবার রাতে বলাগড়ে তৃণমূল বিধায়কের কার্যালয় ভাঙচুর করা হয়। স্থানীয় তৃণমূল যুবনেত্রী রুনা খাতুনের দিকে অভিযোগের আঙুল তোলেন মনোরঞ্জনবাবু। পালটা, মনোরঞ্জনবাবুর বিরুদ্ধে তোপ দেগে থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন রুনাদেবী।
রবিবার ফের রুনা খাতুনের বিরুদ্ধে ঝাঁঝালো আক্রমণ করেন মনোরঞ্জনবাবু। মনোরঞ্জনবাবু যুবনেত্রীকে নিশানা করে বলেন, ‘দলীয় কার্যালয় ভাঙা, দলীয় সদস্যকে মারধর, ঘর দুয়ার ভাঙা হল, অথচ দল তাদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। এ থেকে বোঝা যায় তাঁরা কত শক্তিমান! কী ভাবে বলাগড় জুড়ে এক ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে রেখেছে- যে সবাই তাদের ভয় পাচ্ছে!’ যুবনেত্রীর বিরুদ্ধে তাঁর বক্তব্য, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, যুবনেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি অনুগত মানুষ, যাঁরা আমার সঙ্গে আছেন, তাঁদের ওই ফুলন দেবী আর তাঁর স্বামী, কিছু পোষা গুন্ডা, তাদের সামনে- সেই হিংস্র হায়নার সামনে ফেলে কিছুতেই পালাব না। আমি লড়ছি আর আগামী দিনেও অবশ্যই লড়াই করব।’
তবে দলের যুবনেত্রীর বিরুদ্ধে হুংকার ছাড়ার পাশাপাশি দলের শীর্ষ নেতৃত্বকে রবিবার সময়সীমা বেধে দেন তিনি। মনোরঞ্জন বলেন, ‘দলের দিকে তাকিয়ে দেখব আর একটা-দুটো দিন। সঠিক বিচার না পেলে তারপর দলমত নির্বিশেষে সমস্ত সাধারণ মানুষকে সঙ্গে নিয়ে শুরু করব বলাগড় বাঁচাও, দুÜৃñতী হঠাও জনজাগরণ আন্দোলন। তৈরি থাকুন! সতেরোটা অঞ্চল জুড়ে পদযাত্রা করব। থানার সামনে, বিডিও অফিসের সামনে বিক্ষোভ হবে। হবে প্রতীকী চাক্কা জ্যাম। গ্রেপ্তার বরণ। এটাই আমার সেই এসপার -ওসপার লড়াই হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *